এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




ধর্মীয় বিভাজনের রাজনীতি রুখে দিন, রেড রোডের মঞ্চ থেকে আর্জি অভিষেকের

Courtesy - Facebook




নিজস্ব প্রতিনিধি: সংক্ষিপ্ত অথচ সুনিপুণ বক্তব্য। কলকাতার রেড রোডে বৃহস্পতিবার ঈদের নমাজের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেই উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের(TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়(Abhishek Banerjee)। অনুষ্ঠানে মমতাই ছিলেন মূল বক্তা। তাঁর বক্তব্যের পরে অভিষেক হাতে মাইক তুলে নেন। তবে তিনি দীর্ঘায়িত করেননি নিজের বক্তব্য। বরঞ্চ সুনিপুণ ভাবে সংক্ষিপ্ত আকারেই নিজের বক্তব্য রাখেন বিজেপিকে(BJP) নিশানা বানিয়েই। রেড রোডের মঞ্চ থেকে অভিষেক সাফ প্রশ্ন তোলেন, ‘হিন্দুস্থান কি কারোর বাবার? যে ভাবে ভাইয়ের সঙ্গে ভাইয়ের লড়াই করাবে, তাদের উদ্দেশে একটাই কথা বলব – কিরায়াদার হ্যায়, জাতি মকান থোরি হ্যয়। যে সরকার আপনারা মনোনীত করেন, তার মালিক আপনারাই। সরকার ভাড়াটে হয়, সরকার স্থায়ী নয়, স্থায়ী হল জনতা।’

এদিন অভিষেক বলেন, ‘আপনারা এক মাস ধরে রোজা রেখেছেন। আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছেন। আল্লাহ আপনার সমস্ত কামনা পূর্ণ করুক। সকলের পরিবারে শান্তি, সুস্বাস্থ্য কামনা করি। সকলে ভালোবাসায় থাকুন। যে ভাবে আপনারা সৌভ্রাতৃত্ব বজায় রেখেছেন, তা যেন বজায় থাকে। যে চাঁদ  দেখে ঈদ হয়, সেই চাঁদ দেখে করবা চৌথও হয়। যে গঙ্গার জল হিন্দু ভাই পান করেন, সেই গঙ্গারই জল একজন মুসলমান ভাইও পান করেন। জল-চাঁদের কোনও ধর্ম নেই। যে হাওয়ায় শ্বাস নিই আমরা, তারও কোনও ধর্ম নেই। সৌভ্রাতৃত্বটাই বজায় রাখতে হবে। আব কুছ ভি হো, মসম বদলানা চাহিয়ে। দিদি যা বলেছেন, তার পর বেশি কথা বলা যায় না। তবু, তিনি যখন বলতে বলেছেন, আমি বলছি। সবাই খুশির ঈদে আনন্দ করুন। মনে রাখবেন, যে জল আমরা খাই, তা ভাগ হয় না। যে বাতাসে আমরা নিঃশ্বাস নিই, তা-ও ভাগ হয় না। আমাদের সকলের গায়ে যে রক্ত বইছে, তার রং লাল। কেউ কেউ এই সব কিছুর মধ্যে বিভাজন করতে চাইবে। কিন্তু আপনারা সবাই মিলে তা রুখে দেবেন। বাংলার ঐতিহ্য এই একতা।’




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

সিকিমে ভারী বৃষ্টির কারণে বন্ধ ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক

ডায়মন্ড হারবারের ভোটারদের কৃতজ্ঞতা জানাতে বিশেষ উদ্যোগ অভিষেকের

খেলার নাম করে ডেকে নিয়ে গিয়ে নাবালিকাকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ২

দুবাইতে মিলবে  বাংলার হস্তশিল্প, নয়া উদ্যোগ  রাজ্য সরকারের

প্রবল ভারী বৃষ্টির মুখে উত্তরবঙ্গ, জারি Red Alert

বিক্ষোভ ঠেকাতে মানুষের সমস্যার সমাধান করার পথ বেছে নিলেন শতাব্দী

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর