Comm Ad 2020-LDC Haringhata Meet

ঝাঁঝ কমিয়ে দলে থাকার বার্তাই দিলেন শুভেন্দু! তবুও থামছে না জল্পনা

Share Link:

ঝাঁঝ কমিয়ে দলে থাকার বার্তাই দিলেন শুভেন্দু! তবুও থামছে না জল্পনা

নিজস্ব প্রতিনিধি: নিজেই জানিয়েছিলেন, রামনগরের সভা থেকেই যা বলার বলবো। তাই আগ্রহ উঠেছিল তুঙ্গে, কী ঘোষণা করবেন তিনি তা নিয়ে। কিন্তু এদিন সেই রকমের কোনও ঘোষণার পথা হাঁটলেন না নন্দীগ্রাম গণআন্দোলনের নেতা তথা রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বরঞ্চ দলে থাকারই বার্তা দিলেন ঘুরিয়ে। সেই সঙ্গে নিজের ঝাঁঝ কমিয়ে আর বড় রকমের আক্রমণের পথে হাঁটলেন না তিনি। পাশাপাশি এদিনও জানালেন, ‘রাজনীতি নিয়ে কথা বলার মঞ্চ এতা নয়। যা বলার রাজনীতির মঞ্চ থেকেই বলবো। আমরা জানি কখন কোথায় কী কথা বলতে হয়।’ তাই শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা খুব শীঘ্রই থামছে না। তবে তাঁর ঘনিষ্ঠজন সূত্রে জানা গিয়েছে কার্যত শতাধিক বিধানসভা কেন্দ্রে প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ শুরু করে দিয়েছেন জননেতা। একই সঙ্গে তলে তলে বিজেপি ও কংগ্রেস উভয়ের সঙ্গে আসন রফা নিয়ে দরকষাকষিও চলছে।
 
অনেকেই ভেবেছিলেন এদিনই হয়তো রামনগরের সভা থেকে তৃণমূল ছাড়ার বার্তা দেবেন শুভেন্দু অধিকারী। দেবেন নতুন কোনও দলে যোগদান বা গঠন করার বার্তাও। কিন্তু এদিন শুভেন্দুকে গত কয়েকবারের মতো মারমুখী আক্রমণাত্বক ভূমিকায় দেখা যায়নি। বরঞ্চ এদিন পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগরে সমবায় আন্দোলনের সভামঞ্চে অনেকটাই ঝাঁঝহীণ বক্তব্য রেখেছেন শুভেন্দু। একই সঙ্গে দীর্ঘ নয়, সংক্ষিপ্ত বার্তাও দিয়েছেন তিনি। নাম না করেই যেমন জানিয়েছেন, ‘মন্ত্রীসভা থেকে এখনও তাড়িয়ে দেয়নি। আমিও ছাড়িনি। এখনও আমি একটা দলের নেতা, কর্মী। রাজ্যের মন্ত্রী। আমি জানি দলে থেকে এসব কথা বলা যায় না।’ একই সঙ্গে এর পাশাপাশি নিজেকে গামছা পরা পান্তা খাওয়া মানুষ হিসাবে তুলে ধরে বার বার বলেছেন বাংলার ঘরে ঘরে তাঁর যোগঅ্যাোগ রয়েছে। আম্ফান তাঁকে উড়িয়ে নিয়ে যেতে পারেনি। বলেছেন তিনি ‘বসন্তের কোকিল’ নন যে শুধু ভোট চাইতে আসবেন। তিনি সারা বছরই থাকেন মানুষের মাঝে মানুষের পাশে। তবে এদিনও একবারের জন্যও তিনি দলনেত্রীর নাম নেননি। তৃণমূল শব্দটিও উচ্চারণ করেননি। এদিনের সভামঞ্চ বা তাঁর আশেপাশে তৃণমূলের কোনও পতাকা চোখে যেমন পড়েনি তেমনি ছিল না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোনও ছবিও।
 
এদিনের শুভেন্দুর বক্তব্য শুনে অনেকেরই মনে হয়েছে যে, হুট করে দল ছাড়ার পথে হাঁটবেন না এই জননেতা। বরঞ্চ সময় নিয়ে, সময় দিয়ে জল মাপার কাজ চালিয়ে যাবেন তিনি। দল তাঁকে কতটা গুরুত্ব দেয় বা দলের ওপর তাঁর নিজের কর্তৃত্ব কতখানি থাকে তা দেখে নিতে চান তিনি। তবে বিধানসভা নির্বাচনের আগেই হয়তো তিনি বড় কোনও পদক্ষেপ নেবেন। শুভেন্দু ঘনিষ্ঠজন সূত্রে জানা গিয়েছে শুভেন্দুর সঙ্গে তৃণমূলের রফার সম্ভাবনা খুবই কম। কারন শুভেন্দুর দেওয়া প্রস্তাব মানতে নারাজ তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। তাই শুভেন্দুও উত্তর দিনাজপুর, মালদা, মুর্শিদাবাদ, হাওড়া, হুগলি, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া ও পুরুলিয়ায় প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ শুরু করে দিয়েছেন। তৃণমূলের সঙ্গে রফা ভেস্তে গেলেই এই বিষয়ে যা ঘোষণা করার তা করবেন এই জননেতা। একই সঙ্গে পৃথক মঞ্চ গড়ে প্রার্থী দিলে তিনি কংগ্রেস বা বিজেপির সঙ্গে আসন রফার পথেও হাঁটতে পারেন। বিজেপির সঙ্গে এই নিয়ে আলোচনা শুরু না হলেও কংগ্রেসের সঙ্গে তলে তলে আলোচনা চলছে। আর এই কারনেই বামেদের সঙ্গে আসন রফা নিয়ে এখনও কোনও আলোচনা শুরু করতে পারছে না কংগ্রেস। এসব দেখে অনেকেরই ধারনা এখন সময় নিয়ে বাংলা জুড়ে সভা করে নিজের ঘর গুছিয়ে নিতে চাইছেন শুভেন্দু। তারপরেই মক্ষোম সময়ে যা ঘোষণা করার তা করবেন।

Comm Ad 018 Kalna

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 2020-WBSEDCL RC

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

Voting Poll (Ratio)

corona 02

Editors Choice

Comm Ad 2020-Valentine RC