WBLDC Adv 001

মানসের ছেড়ে যাওয়া রাজ্যসভার আসনে সুস্মিতা

Share Link:

মানসের ছেড়ে যাওয়া রাজ্যসভার আসনে সুস্মিতা

নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলা থেকে খালি হওয়া রাজ্যসভার আসনে তৃণমূল তাঁদের প্রার্থী হিসাবে সুস্মিতা দেবের নাম ঘোষণা করে দিল। অসমের বরাক উপত্যকার বিশিষ্ট কংগ্রেসি নেতা ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সন্তোষ মোহন দেবের মেয়ে সুস্মিতা দেব কিছুদিন আগেই কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেছেন। এদিন তাঁকেই রাজ্যসভায় তৃণমূলের প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করে দিল বাংলার শাসক দল। এই আসনেই জয়ী হয়ে রাজ্যসভায় গিয়েছিলেন কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে আসা মানস ভুঁইয়া। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তিনি বিধায়ক হিসাবে জয়ী হয়ে রাজ্যের মন্ত্রী হয়েছেন। সেই কারনে তিনি রাজ্যসভার আসনটি থেকে পদত্যাগ করেন। তাঁর ছেড়ে দেওয়া সেই আসনেই ভোট রয়েছে অক্টোবরে। সেই আসনেই এখন তৃণমূল প্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষণা করে দেওয়া হল সুস্মিতার।
 
সুস্মিতা তাঁর রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন বাবা সন্তোষ মোহন দেবের হাত ধরে কংগ্রেসের একজন কর্মী হিসাবেই। সুস্মিতার মা বিথিকা দেব ছিলেন অসমের শিলচর বিধানসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস বিধায়ক। সেই সূত্রেই সর্বভারতীয় মহিলা কংগ্রেসের কর্মী হিসাবেই কাজ শুরু করেন সুস্মিতা। পরে রাহুল গান্ধি তাঁকে সর্বভারতীয় মহিলা কংগ্রেসের সভানেত্রী পদেও তুলে নিয়ে আসেন। ২০১৪ সালে সুস্মিতা শিলচর লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়ে সাংসদ হিসাবে কাজ শুরু করেন। কিন্তু অসমে বিজেপির উত্থানের জেরে ২০১৯ সালের ভোটে সুস্মিতা পরাস্ত হন। এরপর থেকেই কংগ্রেসে কিছুটা কোনঠাসা হয়ে পড়তে শুরু করেন তিনি। চলতি বছরেই তিনি বাংলার অগ্নিকন্যা তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করতে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। আর এদিন তৃণমূল তাঁকেই রাজ্যসভার প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করে দিল। বস্তুত তাঁর মতো লড়াকু মহিলাকে রাজ্যসভায় পাঠিয়ে বিজেপিকে কার্যত খুল্লামখুল্লা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিল বাংলার শাসক দল। অনেকেই মনে করছেন মহুয়া মৈত্রকে যেভাবে কংগ্রেস থেকে টেনে এনে লোকসভার সাংসদ হিসাবে পাঠিয়ে বিজেপিকে কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দেওয়া হয়েছে ঠিক সেইভাবে রাজ্যসভাতে সুস্মিতাকে পাঠিয়ে বিজেপিকে কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দিল তৃণমূল। আর যেহেতু তৃণমূলের হাতে ২০০'র বেশি বিধায়ক রয়েছে তাই সুস্মিতার জয়ও কার্যত নিশ্চিত।

WBLDC Adv 012

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

WBLDC Adv 008

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

WBLDC Adv 015

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

নিউ ইয়র্কে শুরু হল মেট গালা ২০২১। নিউইয়র্কে এই অনুষ্ঠানে ছিল তারকাদের ভিড়। ফ্যাশন, স্টাইল ও দুর্দান্ত ডিজাউনে সব তারকারা হাজির হয়েছিলেন বিচিত্র সব পোশাক পরে। মেট গালার রেড কার্পেটে হাঁটার জন্য কী পরবেন সেলেবরা, তার প্রস্তুতি চলতে থাকে বছরের পর বছর ধরে। করোনার কারণে গত বছর আসরটি বসেনি। তাই এবার যেন তারার মেলা বসে গিয়েছিল।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন লিল নাসকের রাজকীয় পোশাক। সোনালি সুপারহিরোর পোশাকে হাজির ছিলেন তিনি।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

সম্পূর্ণ কালো পোশাক নজর কাড়লেন কিম কারদাশিয়ান।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

রালফ লরেনের তৈরি পশমের পোশাকে ধরা দিয়েছেন জেনিফার লোপেজ। সঙ্গে ছিলেন বেন অ্যাফ্লেক। এ বার সামাজিক অনুষ্ঠানেও দেখা দিলেন যুগলে। মেট গালা ২০২১-এর হোয়াইট কার্পেটে অবশ্য আলাদাই হাঁটলেন জেনিফার ও বেন। ভিতরে গিয়ে মাস্ক পরেই চুম্বনে মগ্ন হলেন দুই তারকা।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

সুপার মডেল ইমন চমত্কার পালকযুক্ত স্বর্ণ এবং বেইজ হেডড্রেস এবং স্কার্ট বেছে নিয়েছিল। মাথার পিছনে বসানো সাদা আর সোনালি হেড পিস দেখাল চক্রের মতো।

Voting Poll (Ratio)

WBLDC Adv 010
WBLDC Adv 006