corona 01

স্বল্পকালীন সঞ্চয় প্রকল্পের উপর নির্ভরশীল নাগরিকদের জন্য দুঃসংবাদ

Share Link:

স্বল্পকালীন সঞ্চয় প্রকল্পের উপর নির্ভরশীল নাগরিকদের জন্য দুঃসংবাদ

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রবীণ নাগরিকদের সেভিংস স্কিম থেকে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফাণ্ডের স্বল্প সাময়িক পরিকল্পনার ক্ষেত্রে সুদের হার কমানোর ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ৯০ বেসিস পয়েন্টের (১ পার্সেন্টেজ পয়েন্ট= ১০০ বেসিক পয়েন্ট) ভিত্তিতে সুদের হার কমানোর কথা বলা হয়। গত ৩১শে মার্চ সরকারের তরফে এটি ঘোষণা করা হলেও কিছুক্ষণের মধ্যেই তা প্রত্যাহারও করা হয়।
 
সাধারণ মানুষের এক বিশাল অংশ স্বল্প সাময়িক সঞ্চয়ের সুদের উপর নির্ভরশীল। তাই সরকারের এই নিয়ম প্রত্যাহারের ফলে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছেন সমস্ত মানুষ। তবে গত এক দশক ধরে সুদের হারের উপর নজর রাখলে দেখা যাবে তা ক্রমশ নিম্নমুখী হয়েছে।
 
স্বল্প সাময়িক সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে বিখ্যাত কিছু সঞ্চয় প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে পিপিএফ, সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম, সুকন্যা সমৃদ্ধি স্কিম, বিভিন্ন মেয়াদের ফিক্সড ডিপোজিট, ন্যাশানাল সেভিংস সার্টিফিকেট, কিষাণ বিকাশ পাত্র। সুদ পতনের হার ছিল পিপিএফের ক্ষেত্রে ৯৫ বেসিস পয়েন্ট ও ৩ বছরের ফিক্সড ডিপোজিটের ক্ষেত্রে ১৭৫ বেসিস পয়েন্ট।
 
ভারত চেম্বার অফ কমার্সের সিনিয়র ডেপুটি জেনারেল অভীক রায় বলেন, "সাধারণ মানুষের কাছে স্বল্পকালীন সঞ্চয় আর্থিক সুরক্ষার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। কিন্তু গত দশ বছরে সুদের হার মারাত্মকভাবে কমেছে।" তবে সেভিংস ব্যাংকের ক্ষেত্রে সুদের হার কিছুটা হলেও বেড়েছে। ২০১১ সালে সুদের হার ৩ শতাংশ থেকে বেড়ে ৪ শতাংশ হয়েছে।
 
তিন বছর মেয়াদের ফিক্সড ডিপোজিটের ক্ষেত্রে সুদের হার ৫.৫ শতাংশ থেকে ৭.২৫ শতাংশে পৌঁছে গিয়েছে। ২০১১ সালে কিষাণ বিকাশ পাত্র প্রকল্পে সুদের হার ছিল ৮.৪ শতাংশ যা আবার পরবর্তীকালে ৬.৯ শতাংশ সুদে গিয়ে দাঁড়ায়। সর্বাধিক জনপ্রিয় সঞ্চয় প্রকল্পের মধ্যে একটি পিপিএফ। এর সুদের হার ৮ শতাংশ থেকে কমে ৭.১ শতাংশ হয়ে গিয়েছে।
 
প্রবীন নাগরিকদের স্বল্প সাময়িক সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে সুদের হার ছিল ৭.৪ শতাংশ। ২০১১ সালে যা ছিল ৯ শতাংশ। সর্বসাকুল্যে এই প্রকল্পে ১৬০ বেসিস পয়েন্ট পর্যন্ত সুদের হার নেমে গিয়েছে। যেখানে এই প্রকল্পটি বেশির ভাগ প্রবন নাগরিকদের আয়ের অন্যতম উৎস।
 
৫ বছরের ফিক্সড ডিপোজিট ও ৫ বছরের ন্যাশানাল সেভিংস সার্টিফিকেট ক্ষেত্রেও সুদের হারে কাঁচি পড়েছিল। এই দুই প্রকল্পের ক্ষেত্রে সুদের হার দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৬.৮ শতাংশ ও ৬.৭ শতাংশ। ২০১২ সালে প্রথম এই প্রকল্পটি চালু হয়েছিল যখন তখন এটির সুদের হার ছিল ৭.৫ শতাংশ। অন্যদিকে প্রবীন নাগরিকদের স্বল্পকালীন সঞ্চয় প্রকল্পটি চালু হয়েছিল ২০১৫ সালে, তখন এটির সুদ ছিল ৯ শতাংশ। বর্তমানে তা প্রায় ৭ শতাংশের আশেপাশে রয়েছে।

Comm Ad 2020-LDC Haringhata Meet

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 008 Myra

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 026 BM

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

স্বামী করণ সিং গ্রুভারের সঙ্গে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

বিকিনিতে নিজের অনুরাগীদের মনে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন বিপাশা বসু

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

মলদ্বীপে খোশমেজাজে রয়েছেন বিপাশা

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

বিপাশার বিকিনি পরা ছবি দেখে বলাই যায় বয়স সংখ্যামাত্র

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

হাতে কাজ না থাকায় দাম্পত্য জীবন উপভোগ করছেন বঙ্গতনয়া

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সরকারের হাত ধরে সল্টলেকের বুকে চালু হয়েছে প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। যেখানে মিলবে পোষ্যদের চিকিৎসা পরিষেবা।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সল্টলেকের প্রাণী সম্পদ বিকাশ ভবন প্রাঙ্গণেই এই নতুন প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এদিন উদ্বোধন করেছেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ও স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

এই পশু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মিলবে ইসিজি, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, রক্ত সিরামের বিভিন্ন পরীক্ষা, পরজীবী সংক্রমণ সংক্রান্ত খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ, আধুনিক শল্য চিকিৎসার যাবতীয় সুযোগসুবিধা।

 আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

আগামী দিনে এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিলবে পোষ্যদের চোখ, কান ও দাঁতের পরীক্ষা পরিষেবাও।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে এই নবনির্মিত পশু চিকিৎসালয় তৈরি করা হয়েছে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সারা রাজ্যে প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের অধীনে ১০৪টি রাজ্য প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র, ৮টি পলিক্লিনিক, ৩৪২টি ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ২৭২টি অতিরিক্ত ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু থাকলো বাংলার বুকে।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

সল্টলেক ও আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের কাছে বিশেষ করে যাদের বাড়িতে ছোট পোষ্য থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে অনেকটাই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতে চলেছে এই নবনির্মীত প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি।

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

পূর্বস্থলি দক্ষিণ বিধানসভার কালনা ১ নং ব্লকের, বেগপুর অঞ্চলের পাথর ডাঙ্গায় সংখ্যালঘু দপ্তরের বরাদ্দ ১৫,১৯,০০০ টাকায় নির্মিত জল প্রকল্প উদ্বোধনে মন্ত্রী

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ প্রকল্পের উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রাজ্যের প্রাণীসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

এই বিশেষ জল প্রকল্পের ফলে উপকৃত হবেন এলাকাবাসী

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-Valentine RC
Comm Ad 008 Myra