Comm Ad 2020-tantuja-body

বিতর্কে ফটো এডিটিং অ্যাপ গ্রেডিয়েন্ট, তাদের এআই নির্ভর ‘ব্ল্যাকফেস’ ফিচার নিয়ে

Share Link:

বিতর্কে ফটো এডিটিং অ্যাপ গ্রেডিয়েন্ট, তাদের এআই নির্ভর ‘ব্ল্যাকফেস’ ফিচার নিয়ে

নিজস্ব প্রতিনিধি : ছবি এডিটিং বা সম্পাদনা অ্যাপ ‘গ্রেডিয়েন্ট’ তাদের এআই নির্ভর নতুন ফিচার নিয়ে তোপের মুখে পড়েছে। ফিচারটির সাহায্যে অ্যাপের ভেতরে নিজ জাতিস্বত্ত্বা বদলে দেখা সম্ভব। অনেকেই ফিচারটিকে ডিজিটাল ‘ব্ল্যাকফেস’ আখ্যা দিয়েছেন এরই মধ্যে।

‘গ্রেডিয়েন্ট’ অ্যাপে ফিচারটির নাম ‘এআই ফেস’। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, বুধবার ওই ফিচারের প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন মার্কিন রিয়ালিটি টিভি তারকা স্কট ডিসিক ও ব্রডি জেনার। গ্রেডিয়েন্ট ওয়েবসাইটের তথ্য বলছে, অন্য মহাদেশে জন্মালে, কার চেহারা কী রকম হতো তা দেখার সুযোগ করে দেয় ফিচারটি। প্রচারণার পরপরই তোপের মুখে পড়েছেন প্রচারণায় অংশ গ্রহণকারী সেলিব্রটিরা। এ নিয়ে গ্রেডিয়েন্ট এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি। টুইটারে ছবি শেয়ার করে ইউরোপ, এশিয়া, ভারত ও আফ্রিকায় জন্মালে তাদের দেখতে কেমন দেখাবে, তা জানিয়েছিলেন ডিসিক ও জেনার। তবে, এশিয়া ও ভারত যে আলাদা নয়, উল্টো ভারত এশিয়াতে অবস্থিত, অনেক ব্যবহারকারীই সে ভুল ধরিয়ে দিতে দেরি করেননি।

এর পরপরই খেদ প্রকাশ করেন বেশ কয়েকজন ব্যবহারকারী। পুরো ব্যাপারটিকে ‘বর্ণবাদী’ আখ্যা দিয়ে তাদের প্রচারণাকে ‘ব্ল্যাকফেস’ হিসেবে অভিহিত করেন। ডিসিক ও জেনার পরে ওই ছবিগুলো সামাজিক মাধ্যম থেকে সরিয়ে নিয়েছেন। এখনও এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি ডিসিক ও জেনারের প্রতিনিধিত্বকারীরা। বুধবারের আগেও গ্রেডিয়েন্ট অ্যাপের ব্যাপারে সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেছেন ডিসিক ও কার্দাশিয়ান পরিবারের সদস্যরা। তবে, ওই পোস্টগুলোতে বিজ্ঞাপনী প্রচারণার ব্যাপারটি সুনির্দিষ্ট করে উল্লেখ ছিল। বুধবারের পোস্টে এরকম কোনো কিছু লেখা ছিল না।

গ্রেডিয়েন্ট নিজেদেরকে “মোবাইল ছবি সম্পাদনা জগতের পরবর্তী নক্ষত্র” হিসেবে পরিচয় দিয়ে থাকে। সাইটটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ভ্রাদিস্লাভ উরাযভ, এবং বগদান মাতভিভ, দুই সহ-প্রতিষ্ঠাতার ব্যাপার ওয়েবসাইটে লেখা রয়েছে, তারা “কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও মেশিন লার্নিংয়ে আগ্রহী”। অ্যাপের অন্যান্য ফিচার দিয়ে কোন তারকার সঙ্গে চেহারার মিল রয়েছে, কোন প্রাণীর সঙ্গে চেহারার মিল রয়েছে, এবং পোর্ট্রেইটে পরিণত করলে চেহারা কেমন দেখাবে তা বুঝা যায়। এ ছাড়াও ‘এথনিসিটি এসটিমেট’ নামের আরেক ফিচারের মাধ্যমে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার হাতে ব্যবহারকারীর জাতি খুঁজে বের করার ভার দেওয়া যায়।

এ ব্যাপারে ওয়েবসাইটে লেখা রয়েছে, শুধু আপনার ছবি আপলোড করুন, এবং আমাদের অসাধারণ নিখুঁত অ্যালগরিদমের সাহায্যে নিজের চেহারা বিশ্লেষণ করুন এবং আপনার জাতিগত তথ্য সম্পর্কে জানুন।” এর আগেও সমালোচনার মুখে পড়েছিল গ্রেডিয়েন্ট। গত বছর ব্যবহারকারীদের ছবি সংগ্রহ, এবং অনুমতি ছাড়া ব্যবহারকারীদেরকে সাবস্ক্রিপশন চা্র্জের আওতায় নিয়ে আসার মতো কাজ করে বিতর্কে জড়িয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি।

Comm AD 12 Myra

More News:

Leave A Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

এই মুহূর্তে Live

Comm Ad 026 BM

Stay Connected

Get Newsletter

Featured News

Advertisement

Comm Ad 026 BM

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

খিদিরপুর থেকে শুরু করে বেহালা, হরিদেবপুর,

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

মুদিয়ালী ছুঁয়ে সোধপুর পার্ক

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

বাবুবাগান হয়ে উদ্বোধনের যাত্রা শেষ হল একডালিয়া,

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

হিন্দুস্থান পার্ক, ত্রিধারার চত্বরে এসে।

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

#

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক আধটা নয়, পুরো ১১০টি পুজোর উদ্বোধন একঘন্টার মধ্যেই সেরে ফেলে রেকর্ড গড়ে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

নবান্ন থেকে ভার্চুয়ালি ভাবে রাজ্যের ১২টি জেলার এই ১১০টি পুজোর উদ্বোধন এদিন করে দিলেন তিনি।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

কখনও দূর্গাস্তোত্র পড়ে, কখনও শাঁখ বাজিয়ে, কখনও বা কাঁসর বাজিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন দেখা গেল একের পর এক জেলায় পুজোর উদ্বোধন করতে।

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

একই সঙ্গে নাম না করেই মাঝে মধ্যে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিয়ে তাঁকে মা দুর্গার কাছে প্রার্থনা করতে দেখা গেল যে মা যেন বাংলাকে দাঙ্গা থেকে বাঁচান

Voting Poll (Ratio)

Comm Ad 2020-LDC Egg

Editors Choice

Comm Ad 006 TBS