আপনিও ভাড়া করতে পারেন আস্ত ট্রেন! রেলকে দিতে হবে মাত্র…

Published by:
https://www.eimuhurte.com/wp-content/uploads/2021/09/em-logo-globe.png

Dhrubajyoti Majumder

27th November 2021 5:01 pm | Last Update 27th November 2021 5:28 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি: বাইক, চারচাকা তো অনেক হল, এবার একটা আস্ত ট্রেন সঙ্গে রাখবেন নাকি? এবার চাইলেই নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আপনি পেতে পারেন একটি ট্রেন। তার জন্য অবশ্য আপনার পকেটে থাকতে হবে মোটা অঙ্কের টাকা। রেলকে সিকিউরিটি ডিপোজিট হিসেবে দিতে হবে মাত্র এক কোটি টাকা। তাহলেই একটি আস্ত ট্রেন আপনার জন্য হাজির থাকবে। তবে যাত্রী পরিবহণের জন্য ব্যবহার করা যাবে না। ব্যক্তিগত ও পর্যটন সংস্থাগুলি এই ট্রেন লিজ নিতে পারবে। আসলে সম্প্রতি রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বেসরকারি উদ্যোগে ভারত গৌরব নামে পর্যটক স্পেশাল ট্রেন চালানোর কথা ঘোষণা করেছিলেন। এই প্রকল্পের আওতায় রেলমন্ত্রক ১৮০টি ট্রেন লিজ দেবে বেসরকারি সংস্থা বা ব্যক্তিগত মালিকানায়।

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব ভারত গৌরব ট্রেন চালানোর কথা ঘোষণা করলেও স্পষ্ট করে নিয়মকানুন কিছু জানান নি। রেল সূত্রে জানা যাচ্ছে, বিভিন্ন রেলজোনকেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এই বেসরকারি ট্রেন চালানোর নিয়ম, পরিকাঠামো এবং চুক্তির পদ্ধতি। শনিবারই পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজার এই সংক্রান্ত ঘোষণা করতে পারেন। জানা যাচ্ছে, কোনও পর্যটন সংস্থা বা কর্পোরেট সংস্থা ভারত গৌরব ট্রেন চালানোর জন্য রেক ভাড়া নিতে পারবে। পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগেও রেক ভাড়া নেওয়া যাবে। তবে শুধুমাত্র পর্যটন ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা যাবে ভাড়া নেওয়া ট্রেন। এরজন্য রেলের কাছে সিকিউরিটি ডিপোজিট হিসেবে জমা দিতে বার্ষিক এক কোটি টাকা। রক্ষণাবেক্ষণ, কর্মীদের বেতন-সহ আনুষঙ্গিক খরচের জন্য রেক প্রতি কম করে এক কোটি টাকা ধার্য করা হচ্ছে। এছাড়া রেজিস্ট্রেশনের জন্য প্রয়োজন এক লক্ষ টাকা। দুই থেকে দশ বছরের জন্য চুক্তি করা যাবে। আগে এলে আগে পাবেন ভিত্তিতেই হবে বন্টন প্রক্রিয়া।

তবে সিকিউরিটি ডিপোজিটের অঙ্ক ঠিক হবে কয়েকটি দিকের উপর নির্ভর করে। যেমন কত বছরের চুক্তি, ট্রেনের দূরত্ব, কামরার সংখ্যা রুটের গুরুত্ব ইত্যাদি। একেকটি রেক হবে ১৪ থেকে ২০ কোচের। এই ট্রেনগুলি যারা ভাড়া নেবেন তাঁরা নিজেদের মতো করে বিজ্ঞাপণও দিতে পারবেন ট্রেনের কামরায়। তবে ট্রেন পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব থাকবে রেলের হাতে। শুধুমাত্র কোনও পর্যটন স্থলে ভ্রমণের জন্যই ব্যবহৃত হবে ট্রেনগুলি। কোনও সাধারণ যাত্রী তোলা যাবে না। যদিও ওই ভ্রমণের টিকিট বিক্রি থেকে যাত্রী সংগ্রহ সবটাই করতে হবে সংশ্লীষ্ট সংস্থাকে। এখন দেখার কতগুলি সংস্থা এই উদ্যোগে সাড়া দেয়।

More News:

Leave a Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

নজরকাড়া খবর

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

Subscribe to our Newsletter

134
মিশন দিল্লি, পিকের চাণক্যনীতি কতটা কাজ দিল মমতার?

You Might Also Like