এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




পরের বার মুখ্যমন্ত্রী আমিই হব, হুংকার অশোক গেহলটের




নিজস্ব প্রতিনিধি: কংগ্রেস দলের অভ্যন্তরীণ চাপানউতোরের জেরে কার্যত টালমাটাল পঞ্জাব রাজনীতি। গত এক মাসের মধ্যেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী থেকে পঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি, পদত্যাগ করেছেন অনেকেই। আবার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের পরিবর্তে পঞ্জাব পেয়েছে তাঁদের প্রথম দলিত মুখ্যমন্ত্রী। পঞ্জাব রাজনীতির জটিলতার রেশ কাটতে না কাটতেই শোনা যাচ্ছিল রাজস্থানের কংগ্রেস বিধায়কদের মধ্যেও লেগেছে দ্বন্দ। এমনকি বিধায়কদের চাপে পদত্যাগ করতে পারেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীও। ঠিক যেভাবে সরিয়ে দেওয়া হল পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংকে। কিন্তু শনিবার রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট নিজেই জানালেন, পাঞ্জাবের কোনও ছায়াই পড়েনি রাজস্থানের রাজনীতিতে। আর তাই শুধু এইবার কেন আগামী বারের নির্বাচনে জিতেও মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসছেন তিনিই। এই প্রসঙ্গে তাঁর উক্তি, ‘শুধু এইবার কেন আগামী বারের নির্বাচনে জিতেও মুখ্যমন্ত্রী আমি হব।’

উল্লেখ্য, পঞ্জাব রাজনীতিতে যখন ডামাডোল পরিস্থিতি তখনই শোনা যাচ্ছিল অশান্তি শুরু হয়েছে রাজস্থানেও। রাজস্থানের একাধিক কংগ্রেস বিধায়ক গেহলটকে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান রাজস্থানের তরুণ কংগ্রেস নেতা তথা রাজস্থানের উপ-মুখ্যমন্ত্রী শচীন পাইলটকে। এক্ষেত্রে বলে রাখা ভালো রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীর আসন নিয়ে গেহলট এবং শচীনের মধ্যে লড়াই কিন্তু বেশ পুরনো। রাজস্থানের গত বিধানসভা নির্বাচনের পর খুব অল্পের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর গদি হাতছাড়া হয়েছিল শচীনের। রাহুল গান্ধিসহ কংগ্রেসের একাধিক শীর্ষস্থানীয় নেতা আস্থা রেখেছিলেন প্রবীণ নেতা  গেহলটের ওপর। কিন্তু বর্তমানে শোনা যাচ্ছে দলের অভ্যন্তরীণ একাধিক কর্মসূচির দায়িত্ব থাকে শচীন পাইলটের ওপরে। আর সেই কারণেই ক্ষেপেছেন বিধায়কদের একাংশ। তাঁদের দাবি, যদি শচীনই দলের অধিকাংশ কাজের দায়িত্ব পালন করে তাহলে তাকেই রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীর আসন দেওয়া হোক।

কিন্তু শনিবার এই সমস্ত অভিযোগকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন রাজস্থানের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী। এই প্রসঙ্গে তিনি সাফ জানিয়েছেন, রাজস্থানে কংগ্রেস দলের মধ্যে কোনও দ্বন্দ্ব নেই। তাই সরকার পড়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। শুধু তাই নয়, মুখ্যমন্ত্রীর আরও দাবি, আগামী নির্বাচনেও তাঁর দলই জিতছে এবং তখনও তিনিই রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসবেন।

গেহলটের অভিযোগ, কংগ্রেসকে দুর্বল প্রতিপন্ন করতে এই সমস্ত গুজব রটাচ্ছে বিজেপি দল। আসলে রাজস্থানের মাটিতে ক্রমশ আলগা হচ্ছে বিজেপির শিকড়। আর তাই নিজেদের অস্তিত্ব কোনওক্রমে টিকিয়ে রাখতে কংগ্রেস দলের অভ্যন্তরে দ্বন্দ্ব লাগানোর চেষ্টা করছেন গেহলট বিরোধীরা।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

ভোট ভরাডুবির কারণে ওড়িশার প্রদেশ কংগ্রেস কমিটি ভেঙে দিলেন খাড়গে

বিচারকদের রাজনীতিতে পা ঠেকাতে বিল আসছে রাজ্য সভায়

হরিয়ানার নুহতে সাম্প্রদায়িক অশান্তির আশঙ্কায় বন্ধ মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা

‘কভি শুনা, রুপিয়া দে কে মিনিস্ট্রি নেহি দিয়া’, নীতীশ আর চন্দ্রবাবুকে নিশানা মমতার

কাঁওয়ার যাত্রা নিয়ে যোগী সরকারের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা

বাজেট অধিবেশন নিয়ে মোদি সরকারকে তোপ খাড়গের

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর