এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




দুর্গার পরিবর্তে এই গ্রামে মনসা পুজো হয় পাঁচদিন ধরে




নিজস্ব প্রতিনিধি, বালুরঘাট: এই রাজ্যেই এমন একটি গ্রাম আছে, যেখানে আশ্বিন মাসের শুক্লাপক্ষে দেবী দুর্গার পুজো হয় না। তার বদলে সাড়ম্বরে পালিত হয় মনসা পুজো। দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট ব্লকের বোয়ালদাড় পঞ্চায়েতের ফুলঘরা গ্রামে বছরের পর বছর  ধরে এমনটাই হয়ে আসছে। মনসা পুজোই এই গ্রামের শ্রেষ্ঠ উৎসব। এর নেপথ্যে রয়েছে বিশেষ কারণ, রয়েছে ইতিহাস।
প্রায় সাড়ে তিনশো বছর আগের কথা। কথিত আছে, ওইসময় ফুলঘরা গ্রামে একের পর এক গ্রামবাসী সর্পাঘাতে মারা যাচ্ছিলেন। শুধু মানুষই নয়, অনেক গবাদি পশুও সর্পাঘাতে মারা যাচ্ছিল। সর্পাঘাতে অতিষ্ঠ গ্রামবাসীরা কোনও উপায়েই ঠেকাতে পারছিল না এই মৃত্যুমিছিল। এমন সময় গ্রামের বাসিন্দা গুদর মণ্ডল নামে এক ব্যক্তি স্বপ্নাদেশ পান, গ্রামে মনসা দেবীর পুজো করা হলে আর কেউই সর্পাঘাতে মারা যাবেন না। এর কিছুদিন পর গুদর মণ্ডল স্নান করতে আত্রেয়ী নদীতে গেলে দেখেন, দেবী মনসার একটি কাঠামো ভেসে যাচ্ছে। তৎক্ষণাৎ তিনি গ্রামবাসীদের বিষয়টি জানালে তাঁরা সেই কাঠামো তুলে নিয়ে এসে মন্দিরে স্থাপন করেন। তারপর থেকে প্রতি বছর পুজো হয়ে আসছে।
প্রথম দিকে শ্রাবণ মাসেই পুজো করা হত মনসা দেবীর। তবে গ্রামে দুর্গাপুজো না হওয়ায় শারদোৎসবের দিনগুলিতেই মা মনসার পুজো শুরু হয় ফউলঘরা গ্রামে। যদিও আশপাশের গ্রামগুলিতে দুর্গাপুজোতেও অংশ নেন এই গ্রামের অনেকেই।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

কোজাগরী পুজো শেষে সবার অলক্ষ্যেই বিসর্জিত হবেন রাজবাড়ির দুর্গা

শিল্পের সন্ধানে জীবন্ত শিল্পীদের মণ্ডপে হাজির করেছে বহরমপুর

বামনগোলায় রায় বাড়ির দুর্গা পুজোয় নজর কাড়লেন মহিলা পুরোহিতরা

ধান্যকুড়িয়া গ্রামে, নিরামিষ বাল্যভোজনে মাতে বৈষ্ণব সমাজ

ঘাটালের হরিশপুরে পুজো মণ্ডপের থিম ‘মাটি আর মা’

বিদ্যাধরী নদীর তীরে উভয় সম্প্রদায়ের হাতে পুজীত হন দেবী দুর্গা

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর