করোনার কালবেলায় ‘আচ্ছে দিন’, বাংলাদেশে কোটিপতির সংখ্যা লাখ ছুঁইছুঁই

Published by:
https://www.eimuhurte.com/wp-content/uploads/2021/09/em-logo-globe.png

Sundeep Sinha

12th October 2021 7:02 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বেলাগাম সংক্রমণে যখন আম আদমির ‘ত্রাহি, ত্রাহি’ অবস্থা, তখন সত্যিই আচ্ছে দিন উচ্চবিত্তদের। মারণ ভাইরাস দেশের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেললেও দেশে কোটিপতির সংখ্যা উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে। এক বছরের ব্যবধানে কোটিপতির সংখ্যা বেড়েছে ১৩ হাজার ৮৮১ জন। গত জুন মাস পর্যন্ত দেশে কোটিপতির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৯ হাজার ৯১৮ জনে। বাংলাদেশ ব্যাঙ্কের এক প্রতিবেদনেই এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে।

আজ থেকে ৫০ বছর আগে পাকিস্তানের নাগপাশ থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীন দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিল বাংলাদেশ। দেশ স্বাধীনের পরে ১৯৭২ সালে দেশে কোটিপতি আমানতকারীর সংখ্যা ছিল মাত্র পাঁচজন। ১৯৭৫ সালে সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৪৭ জনে। পাঁচ বছর বাদে ১৯৮০ সালে দেশে কোটিপতি ছিলেন ৯৮ জন। ১৯৯০ সালে ৯৪৩ জন, ১৯৯৬ সালে ২,৫৯৪ জন, ২০০১ সালে ৫,১৬২ জন, ২০০৬ সালে ৮,৮৮৭ জন এবং ২০০৮ সালে ১৯,১৬৩ জন কোটিপতি ছিলেন। কিন্তু তার পরে সময় যত গড়িয়েছে ততই দেশে ধনীর সংখ্যা বেড়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাঙ্কের তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের জুন মাসে শেষ হওয়া দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে দেশে কোটিপতি গ্রাহকের সংখ্যা ছিল ৮৬ হাজার ৩৭ জন। আর চলতি বছরের জুনের শেষ দিনে সেই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৯ হাজার ৯১৮ জনে। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে কোটিপতি গ্রাহক বেড়েছে ১৩ হাজার ৮৮১ জন। অর্থা‍ৎ ১৬ শতাংশ।

তার মধ্যে ৭৮ হাজার ৬৯৪ জনের নামে ১ থেকে ৫ কোটি টাকা জমা রয়েছে। ৫ থেকে ১০ কোটি টাকা পর্যন্ত আমানত জমা রয়েছে ১১ হাজার ১৩ জনের। তিন হাজার ৫৯৯ জনের নামে ১০ থেকে ১৫ কোটি টাকা জমা রয়েছে। ১৫-২০ কোটি টাকা জমা রয়েছে এক হাজার ৭৩২ জনের নামে। আর ২০-২৫ কোটি টাকা পর্যন্ত জমা রয়েছে এক হাজার ১৮৫ জনের নামে।

Rupangi

More News:

Leave a Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

নজরকাড়া খবর

Manjusha Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

Subscribe to our Newsletter

45
মিশন দিল্লি, পিকের চাণক্যনীতি কতটা কাজ দিল মমতার?