এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




ভাল্লুকের মাংস খেয়ে মস্তিষ্কে কৃমিতে আক্রান্ত মার্কিন পরিবারের ৫ সদস্য




নিজস্ব প্রতিনিধি: ভাল্লুকের মাংস খাওয়ার পর মস্তিষ্ক কৃমিতে আক্রান্ত এক মার্কিন পরিবার। সম্প্রতি সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (CDC) র একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই আমেরিকান পরিবারটি একটি সমাবেশে গিয়ে ভাল্লুকের মাংসের ভাগ করে খেয়েছিলেন। এরপরই মস্তিষ্কের কৃমিতে আক্রান্ত হয় ওই মার্কিন পরিবার। তাঁদের রোগের উপসর্গগুলি ছিল, পেশীতে তীব্র ব্যথা, চোখের চারপাশে ফুলে যাওয়া। একাধিক শারীরিক রোগ নিয়ে অল্প সময়ের ব্যবধানে একাধিকবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ওই মার্কিন পরিবার। এরপরেই তদন্তের ভিত্তিতে জানা যায় যে, ২৯ বছর বয়সী তিনি অসুস্থ হওয়ার আগে দক্ষিণ ডাকোটায় একটি পারিবারিক সমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন। এই সমাবেশের খাবারের মেনুতে ছিল কালো ভাল্লুকের মাংস থেকে তৈরি কাবাব।

সিডিসি রিপোর্ট অনুসারে, ভাল্লুকের মাংস গলানোর আগে দেড় মাস ফ্রিজে সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছিল এবং গাঢ় রঙের কারণে এই মাংসের স্বরূপ বোঝা যায়নি। এরপর ওই পরিবারের সদস্যরা মাংসটি সেদ্ধ না হওয়ার কারণ সন্দেহ প্রকাশ করেন এবং আবার পরিবেশন করার আগে এটি পুনরায় রান্না করার পরামর্শ দেওয়া হয়। সেই ভাল্লুকের মাংস পরিবারের মোট নয়জন সদস্য খেয়েছিলেন বলে সূত্রের খবর। তাঁদের মধ্যে ২৯ বছর বয়সী একজন সদস্য ঘটনাস্থলেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। এবং তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আর চিকিৎসকরা বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরিক্ষার মাধ্যমে জানতে পারেন, তাঁর ট্রাইচিনেলোসিস নামক একটি বিরল ধরণের রাউন্ডওয়ার্ম রয়েছে, যা সাধারণত বন্য প্রাণী খাওয়া থেকে আসে। এই কৃমি শরীরের মধ্য দিয়ে ভ্রমণ করতে করতে মস্তিষ্কে পৌঁছয়। যার ফল হয় মারাত্মক।

চিকিৎসকদের কথায়, মস্তিষ্কের কৃমি সংক্রমণের লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে বমি বমি ভাব, বমি, মাথাব্যথা এবং খিঁচুনি। তবে অনেকেই কোনও উপসর্গ অনুভব করতে পারে না। সাধারণত, ইমিউন সিস্টেম পরজীবীদের ঘিরে রাখে এবং তাদের শক্ত, ক্যালসিফাইড কাঠামোতে পরিণত করে, যা তাদের শরীরে আরও ছড়িয়ে পড়তে বাধা দেয়। এই পরজীবী গুলিকে হত্যার নিশ্চিত উপায় হল, মাংসকে কমপক্ষে ১৬৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রায় সঠিকভাবে রান্না করা। ওই আক্রান্ত পরিবারের মধ্যে একটি ১২ বছরের কন্যাও রয়েছে। তাঁদের সবার ফ্রিজ-প্রতিরোধী কৃমি ধরা পড়েছে। তাদের অ্যালবেন্ডাজোল নামক ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা করা হচ্ছে।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

কুয়েতের বহুতলে অগ্নিকাণ্ডে ৪৫ ভারতীয় শ্রমিকের মৃত্যু

যোগী রাজ্যে দুর্নীতির বিরুদ্ধে চার মাস ধরে অনশন চালানো সমাজকর্মীর মৃত্যু

ব্রিটেনে ভেঙে ফেলা হচ্ছে জগন্নাথ দেবের মন্দির, কারণ কী?

যুদ্ধবিরতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে ইজরায়েলের ওপর চাপ দিতে আহ্বান জানিয়েছে হামাস

কুয়েতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শোকপ্রকাশ স্ট্যালিনের, জরুরি বৈঠকে বিজয়ন

গাজায় চিকিৎসা ও অপুষ্টিতে মৃত্যুর মুখে প্রায় ৮০০০ শিশু! জানালো ‘হু’

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর