এই মুহূর্তে

চোখ বন্ধ করে ভরসা করুন এই ৫ রাশির জাতকদের

নিজস্ব প্রতিনিধি: যেকোনও সম্পর্কের ভিত্তি বিশ্বাস এবং সততার উপর নির্ভর করে। আমরা তখনই কাউকে বিশ্বাস করতে পারি, যখন কাউকে খুব কাছের বলে মনে করি। যখন আমাদের কেউ সম্মান করে ও ভালবাসে, তখন তাকে আমরা বিশ্বাস করি ও তার কাছে নিজেদের নিরাপদ বোধ করি। এর ফলে সম্পর্ক আরও মজবুত হয়। জ্যোতিষশাস্ত্রে, ৫ টি রাশিচক্রকে যে কোনও সম্পর্কের ক্ষেত্রে সবচেয়ে সৎ বলে মনে করা হয়। আসুন জেনে নিই এই রাশিগুলো কোনটি।

১. মেষরাশি- এই রাশির জাতকরা জন্মগতভাবেই শক্তিশালী এবং উচ্চ ব্যক্তিত্বের জন্য সুপরিচিত। এই রাশির লোকেরা যা চান তারা তা পাওয়ার জন্য বেশ সোচ্চার এবং অন্যরা তাদের কাছ থেকে কী প্রত্যাশা করে তা বলতে ভয় পান না। অতএব বলা যায় যে, সবচেয়ে প্রভাবশালী রাশির তালিকার শীর্ষে মেষ রাশিকে স্থান দেওয়া যেতে পারে।

২. সিংহরাশি- সিংহরাশি সামাজিক চক্রের মধ্যে প্রভাবশালী তবে তারা কোনো নির্দিষ্ট উপায়ে জিনিস দাবি করার ক্ষেত্রে মেষের মত সরাসরি কাজ করে না। তবে তাদের ব্যক্তিত্ব অনেক বেশি। এই রাশির জাতকরা প্রভাবশালী হলেও তারা তাদের অনুগতদের প্রতি সংবেদনশী এবং এটি অবশ্যই মহান নেতার লক্ষণ।

৩. কন্যারাশি- আপনি কন্যারাশিকে প্রভাবশালীর তালিকায় নাও রাখতে পারেন। তবে আপনি যদি লক্ষ্য করেন তাহলে দেখবেন যে তারা অত্যন্ত শক্তিশালী এবং অবিচল।তারা দৃঢ় ব্যক্তিত্বের অধিকারী। তারা অন্যের ওপর কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে পারে এবং যা চায় তা পাওয়ার জন্য যাবতীয় কাজ করে থাকে।

৪. ধনুরাশি- ধনুরাশির জাতকরা বেশিরভাগই অত্যন্ত স্বতন্ত্র ব্যক্তি। তারা অন্যের কৌতুক এবং কল্পিত অনুযায়ী কখনোই জীবন যাপন করতে চায় না। তারা যখনই প্রয়োজন তাদের মতামত প্রকাশ করেন । তারা স্বাধীনতার ধারাবাহিকতার জন্য জিনিসগুলি করার পথে তারা প্রায়শই প্রভাবশালী এবং নিয়ন্ত্রণকারী ব্যক্তি হিসাবে আসে।

৫. কর্কটরাশি- এই রাশির মানুষেরা সংবেদনশীলভাবে লোককে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। কোন কাজ কিভাবে করতে হয় তারা সেটা ঠিক মতোই জানেন এবং একই সঙ্গে অন্যকে ভ্রান্তির মধ্যে ফেলে দিতে পারে।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

জানেন কী, ভাত গরম নয়, ঠান্ডা খাওয়া বেশি উপকারী?

এ বছর মহাশিবরাত্রি কবে এবং কখন?

এ বছর দোল পূর্ণিমায় চন্দ্রগ্রহণ, কবে, কখন, জেনে নিন দিনক্ষণ ও সময়

বসন্তে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় কোন কোন খাবার?

অতিরিক্ত ভুঁড়ি বেড়ে যাওয়ার কারণ…..

সপ্তাহে কতবার স্ক্রাবিংয়ের প্রয়োজন?

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর