এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




কেরলে বিজেপির ঐতিহাসিক জয়, সুরেশ গোপির হাত ধরে নয়া অধ্যায়ের সূচনা




নিজস্ব প্রতিনিধি: গণতান্ত্রিক উৎসবের আজ প্রতীক্ষিত দিন। লোকসভা নির্বাচনের ভোট ফলাফল। কে জিতবে, কে হারবে, গোটা দেশের এখন পাখির চোখ ভোটের ফলাফলের ওপর। মোটামুটি ভোট গণনা পর্ব শেষ পর্যায়ে। গোটা দেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দলের সঙ্গে তুমুল টক্কর হচ্ছে অন্যান্য দলগুলির। কে জিতবে কে হারবে! টানটান উত্তেজনা। ইতিমধ্যেই একাধিক জয়ীর নাম ঘোষণা হয়ে গিয়েছে। তবে এবারের লোকসভা নির্বাচনের বেশি আকর্ষণীয় দিকপালরা ছিলেন তারকা প্রার্থীরা। বহু তারকারা বিভিন্ন দলের প্রার্থী তালিকায় নাম লিখিয়েছেন। যাঁদের মধ্যে কেউ নতুন, আবার কেউ বহুদিন ধরেই রাজনীতিতে নিজের জায়গা পাকিয়েছেন। কেননা সিনেমা আর রাজনীতির সম্পর্ক অনেক পুরনো।

বলিউড থেকে দক্ষিণ পর্যন্ত অনেক তারকা, যারা চলচ্চিত্রে তাদের অভিনয় দক্ষতা প্রমাণ করার পরে, তাদের ভাগ্য পরীক্ষা করার জন্য রাজনীতিতে প্রবেশ করেছেন। ইতিমধ্যেই মান্ডি থেকে কঙ্গনা রানাউত, মথুরা থেকে হেমা মালিনী বিপুল ভোটে জিতে গিয়েছেন। এছাড়াও বিজয়ী হওয়ার পথে রয়েছেন আরও একাধিক তারকারা। এদিকে কেরলের ত্রিশুর থেকে বিপুল ভোটে জয়ী হলেন অভিনেতা তথা পরিণত রাজনীতিবিদ সুরেশ গোপী। যা কিনা ইতিহাসে প্রথম, কেরলে বিজেপির নতুন অধ্যায়ের সূচনা হল। এর আগে বিজেপি ঢুকতে পারেনি কেরলে। এই প্রথম কেরলে প্রবেশ করল বিজেপি। ২০১৬ সালে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন সুরেশ গোপী। তাঁর জয় ঐতিহাসিক প্রমাণিত হয়েছে, তিনি ৭৫,০৭৯ ভোটের চিত্তাকর্ষক লিড নিয়ে ত্রিশুর আসনে বিজয়ী হয়েছেন। বর্তমান রেকর্ড অনুযায়ী, অভিনেতা থেকে রাজনীতিবিদ হয়ে উঠেছেন 4,09,239 ভোট। 3,34,160 ভোট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে পিছিয়ে LDF-এর VS সুনীল কুমার! তবে তাঁর জয় শুধুমাত্র কেরলে বিজেপির প্রথম জয়ের ইঙ্গিতই দেয় না বরং সুরেশ গোপীকে রাজ্য থেকে নির্বাচিত প্রথম সাংসদ হিসেবেও পরিচয় করিয়ে দিয়েছে। মালায়ালম অভিনেতা সুরেশ গোপী তাঁর জোরালো জয় নিয়ে মুখ খুলেছেন৷

১৯৮৯ সালে ত্রিশুর লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচনী জলে প্রথমবার বিজেপি তার পায়ের আঙুল ডুবিয়েছিল, তখন তারা সামান্য ৫.৩৫ % ভোট পেয়েছিল। এটি রাজ্যের অন্যত্র তাদের কর্মক্ষমতা প্রতিফলিত করেছে। এই প্রবণতাটি ২০১৪ সাল পর্যন্ত পরবর্তী সাতটি নির্বাচনের জন্য স্থগিত ছিল, তাদের ভোটের ভাগ মাত্র ১০% ছিল। তবে, ২০১৯ সালে একটি নাটকীয় মোড় নিয়েছিল কারণ এই মন্দিরের শহরে সুরেশ গোপীর প্রবেশ স্থানীয় নির্বাচনের গতিশীলতায় একটি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন চিহ্নিত করেছে। জয়ী হওয়ার পর একটি সংবাদমাধ্যমকে প্রবীণ মালয়ালম অভিনেতা বলেন, “আমি সম্পূর্ণ উচ্ছ্বসিত মেজাজে আছি। যা খুবই অসম্ভব ছিল তা গৌরবময়ভাবে সম্ভব হয়েছে…এটি ৬২ দিনের প্রচার প্রক্রিয়া ছিল না, এটি ছিল গত ৭ বছর ধরে একটি আবেগপূর্ণ যাত্রা।’




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

দুই দেশের মধ্যে সুসম্পর্কের বার্তা, হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে মোদি

বদলার রাজনীতি চন্দ্রবাবুর, গুঁড়িয়ে দেওয়া হল জগনের দলের কার্যালয়

প্রজ্বল রেভান্নার ভাই সুরজ ‘সমকামী’, গ্রেফতার হলেন দলেরই কর্মী

সৌজন্য বজায় রাখলেন মমতা, মোদি-শাহকে পাঠালেন আম

সুস্থ সন্ধ্যা রায়, ছ’দিন পর হাসপাতাল থেকে হাসিমুখে বাড়ি ফিরলেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী

গুজরাত হাইকোর্টের আদেশের পরেই ওটিটিতে মুক্তি পেল আমির পুত্রের ‘মহারাজ’

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর