এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




সাধন কন্যা শ্রেয়া নন, সাধনজায়া সুপ্তি হতে পারেন তৃণমূলের প্রার্থী

Courtesy - Facebook




নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে(Sadhan Pandey) মারা যাওয়ায় কলকাতার(Kolkata) মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্রটি(Maniktala Assembly Seat) ফাঁকা হয়ে গিয়েছিল। একুশের ভোটে সেই কেন্দ্রে শেষবারের মতো জয়ী হয়েছিলেন সাধনবাবু। কিন্তু তিনি যাকে হারিয়েছিলেন সেই বিজেপি প্রার্থী কল্যাণ চৌবে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন যে, তাঁকে কারচুপি করে হারানো হয়েছে। সেই মামলা সাধনবাবুর মৃত্যুর পরেও তিনি প্রত্যাহার করেননি। তার জেরে সাধনবাবুর ফাঁকা আসনে ভোট করাতে পারছিল না খোদ নির্বাচন কমিশনও। কিন্তু কিছুদিন আগে হয়ে যাওয়া লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন সময়ে কল্যাণবাবু সেই মামলা প্রত্যাহার করে নেন। আর তার জেরে কমিশনও এবার মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের(Bye Election) ব্যবস্থা করেছে। আগামী ১০ জুলাই সেই নির্বাচন। মানিকতলায় ভোট হলে কে সেই কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হবেন, তা নিয়ে তৃণমূলের অন্দরে বেশ জল্পনা ছিল। সব থেকে বেশি জল্পনা ছড়িয়েছিল সাধন পাণ্ডের মেয়ে শ্রেয়া পাণ্ডে(Shreya Pandey) সেখানে তৃণমূলের প্রার্থী(TMC Candidate) হবেন। এখন জানা যাচ্ছে, সেখানে শ্রেয়া নন, শ্রেয়ার মা তথা সাধন পত্নী সুপ্তি পাণ্ডে(Supti Pandey) তৃণমূলের প্রার্থী হচ্ছেন।

এদিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee) বৈঠক ডেকেছিলেন মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী ঠিক করার জন্য। সেই বৈঠকে যোগ দেন কুণাল ঘোষ, অতীন অতীন ঘোষ সহ কলকাতা পুরনিগমের সেই ১০টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের যে সব ওয়ার্ড নিয়ে মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্রে রয়েছে। সেই বৈঠকেই ঠিক হয় সাধন জায়া সুপ্তি পাণ্ডে মানিকতলা থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হচ্ছেন। সেই ইঙ্গিত স্পষ্ট হয় শ্রেয়ার ফেসবুক পেজে। সেখানে শ্রেয়া মায়ের সঙ্গে ছবি দিয়ে তার ওপরে লেখেন, ‘Mummy Daddy must be so proud’। আর তাতেই স্পষ্ট হয় সুপ্তিই হতে চলেছেন মানিকতলায় তৃণমূলের বাজি। সুপ্তি দীর্ঘদিন ধরেই মমতার সঙ্গে ব্যক্তিগত ভাবে যোগাযোগ রেখে চলেছেন। সিঙ্গুর ও নন্দীগ্রাম আন্দোলনের সময়ে মমতার সভা ও মঞ্চে তাঁকে বার বার দেখা গিয়েছে। কিন্তু স্বামীর জীবিতকালে তিনি কখনই সক্রিয় ভাবে ভোটের রাজনীতিতে নামেননি। সাধনের হয়ে প্রচার করেছেন, তাঁর পাশে থেকেছেন, কিন্তু নিজে কোনওদিন ভোটের প্রার্থী হননি। কিন্তু এবার মমতাই তাঁকে কার্যত তৃণমূলের প্রার্থী হিসাবে মাঠে নামাচ্ছেন। কেননা মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্রে সাধনের পরিবারের একতা প্রভাব আছে।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

ডায়মন্ডহারবারে পরাজিত অভিজিৎকে শোকজ  বিজেপির

ফের পিছল দক্ষিণবঙ্গের পূর্বাভাস, সপ্তাহের শেষ ভাগে দক্ষিণবঙ্গের জেলাতে আগমন ঘটতে পারে বর্ষার

ভোট পরবর্তী হিংসা না থাকলে বাহিনী প্রত্যাহার হোক, অভিমত কলকাতা হাইকোর্টের

কারখানায় গ্যাস সিলিন্ডার ফেটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, আহত ৪ শ্রমিক

ভোট পরবর্তী হিংসার ৫৬০টি অভিযোগের মধ্যে অর্ধেকের বেশি ভুয়ো-ভিত্তিহীন

এসএসকেএম- সহ কলকাতায় একাধিক জায়গায় বোমাতঙ্ক

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর