এই মুহূর্তে

শিনা বোরাকে হত্যার নেপথ্যে কী উদ্দেশ্য ছিল মা ইন্দ্রানীর, ফুটে উঠবে ডকু-সিরিজে

নিজস্ব প্রতিনিধি: মুক্তি পেল বহু প্রতীক্ষি ডকু সিরিজ ‘দ্য ইন্দ্রাণী মুখার্জি স্টোরি: ব্যুরিড ট্রুথ’-এর ট্রেলার। চার পর্বের ডকু-সিরিজটিতে উঠে আসবে ২০১৫ সালের সবচেয়ে চাঞ্চল্যকর শীনা বোরা হত্যার ঘটনা। এটি নেটফ্লিক্সে ২৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে।২০১৫ সাল। গোটা দেশকে চমকে দিয়েছিল এক বেসরকারি সংস্থার কর্ণধারের গ্রেফতারি কাণ্ড। অভিযোগ ছিল, তিনি তাঁর মেয়েকেই নাকি হত্যা করেছেন। যার শিনা বোরা (Sheena bora murder case)। নামটা কম-বেশি সবার শোনা! যিনি সম্পর্কে ছিলেন ইন্দ্রানীর বোন। হ্যাঁ, আগে সেটাই সবাই জানতেন। কিন্তু পরে শোনা যায়, ইন্দ্রানী ও তাঁর প্রথম স্বামী সিদ্ধার্থ দাসের সন্তান। ২০০২ সালে দ্বিতীয় স্বামী সঞ্জীবের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করে পিটার মুখোপাধ্যায়কে বিয়ে করেন ইন্দ্রানী। আর তৃতীয় স্বামীর কাছেই মেয়েকে বোন হিসেবে পরিচয় দিয়েছিলেন ইন্দ্রানী। আবার পরে শোনা গিয়েছিল, পিটারের ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল শিনার।

তবে তাঁর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না ২০১২ থেকে, বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন পিটারের ছেলে। বলেন, তাঁর ফোনে শিনার শেষ ম্যাসেজ হল বিচ্ছেদের ম্যাসেজ। সেই সময়, মেয়ের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে ইন্দ্রানী বলেছিলেন, তাঁর মেয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলে গিয়েছে। পরে ইন্দ্রানীর প্রাক্তন স্বামী সঞ্জীব এবং বর্তমান স্বামী পিটার স্বীকার করেছিলেন যে, শ্যামবর পিন্টুরাম রাই নামে তাঁদের গাড়ির চালক শিনাকে অপহরণ করে হত্যা করেন এবং পরে প্রমাণ লোপাটের জন্যে শিনাকে পুড়িয়ে দেন। ইন্দ্রানী মুখোপাধ্যায় প্রথম বিচ্ছেদের পর সন্তানদের বাবা-মার কাছে গুয়াহাটিতে রেখে কলকাতায় চলে যান। পরে শিনা ও তাঁর ভাই মামা-মামির কাছে বেড়ে উঠেছেন। এরপর সঞ্জীব খান্নাকে বিয়ে করেন ইন্দ্রানী, তাঁদের ঘরেও একটি মেয়ে রয়েছে বিদ্যা। সেই সম্পর্ক ২০০২ সালে ভেঙে মুম্বই চলে যান ইন্দ্রাণী আর সেখানে পিটারকে বিয়ে করেন তিনি। এরপর যখন শিনা তাঁর মায়ের সম্পর্কে সব জানতে পারেন, তখন সে মুম্বই যায় আর সেখানে MBA শেষ করেন।আর তৃতীয় স্বামীর কাছে শিনাকে বোন হিসেবে পরিচয় দেন ইন্দ্রাণী, এরপর শিনা রিলায়েন্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারে চাকরি নেন। কিন্তু আচমকাই তাঁর দীর্ঘদিন অফিসে না আসার দরুন খোঁজ শুরু হয় শিনার।

 

তবে তাঁর হত্যার বিষয়টি প্রকাশ্যে এসেছিল ২০১৫ সালে ভিন্ন একটি মামলায় ইন্দ্রাণীর গাড়ির চালক শ্যাম রাইয়ের গ্রেপ্তারির পরে। সে বছরেই শ্যাম রাইয়ের স্বীকারোক্তিতে আগস্ট মাসে ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়কে শিনা বোরার খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়। সঙ্গে গ্রেফতার হয়েছিলেন ইন্দ্রাণীর প্রাক্তন স্বামী সঞ্জীব ও বর্তমান স্বামী পিটার। ২০১৯ সালে পিটার-ইন্দ্রাণীর ডিভোর্স হয়। ২০২০ সালে পিটার জামিন পান। আর ছয় বছর আন্ডার ট্রায়ালে থাকার পর জামিনে মুক্তি পান ইন্দ্রাণী জামিন, ২০২২ সালে। এবার এই ঘটনার কতটা ‘দ্য ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায় স্টোরি: বারুট ট্রুথ’ ডকুসিরিজে উঠে আসবে তা জানা যাবে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি। বোঝাই যাচ্ছে, সিনেমার থেকেও বেশি চাঞ্চল্যকর হতে পারে এটি। ২০১৫ সালে, তার ২৫ বছর বয়সী কন্যা শীনা বোরাকে হত্যার অভিযোগে INX মিডিয়ার সিইও ইন্দ্রাণী মুখার্জির গ্রেপ্তার করেছিল, জাতি হতবাক হয়েছিল। ট্রেলার, যা ১২ ফেব্রুয়ারি উন্মোচন করা হল, যেখানে ফুটে উঠবে মেয়েকে হত্যার পেছনে ইন্দ্রানীর কী উদ্দেশ্য হতে পারে। ‘দ্য ইন্দ্রাণী মুখার্জি স্টোরি: ব্যুরিড ট্রুথ’-এ ইন্দ্রাণী মুখার্জি, তার সন্তান বিদ্যা মুখার্জি এবং মিখাইল বোরা সহ, বেশ কয়েকজন প্রবীণ সাংবাদিক এবং আইনজীবীদের অকার্যকর পারিবারিক গতিশীলতার উপর আলোকপাত করা হয়েছে।

Published by:

Sushmitaa

Share Link:

More Releted News:

অপেক্ষা শেষ! ৭ বছর পর কপিল শর্মার শোয়ে সুনীল গ্রোভার, কবে থেকে শুরু?

নতুন বছরেই খুশির খবর, ২ হিন্দি ছবিতে ডাক পেলেন খরাজ, সঙ্গী কার্তিক-বিদ্যা

‘হীরামান্ডি’, ‘দো পাত্তি’ থেকে ‘মার্ডার মুবারক’, ২০২৪ গোটা বছর জমিয়ে রাখবে নেটফ্লিক্স

মাত্র ২৮ বছরেই ক্যান্সার কেড়ে নিল প্রাণ, প্রায়ত প্রাক্তন ‘মিস ইন্ডিয়া ত্রিপুরা’

প্রয়াত প্রখ্যাত অভিনেতা তথা আমলা কে শিবরাম

প্রথম পাঁচে নেই বড়সড় বদল, দেখে নিন এ সপ্তাহের টিআরপি তালিকা

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর