এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine

WEB Ad_Valentine



৪ লক্ষ কোটির বিনিয়োগ বার্তা ঘোষিত হবে BGBS-23’র মঞ্চে

Courtesy - Facebook



নিজস্ব প্রতিনিধি: মাত্র আর কয়েক ঘন্টার অপেক্ষা। তারপরেই রাজারহাট নিউটাউনের Biswa Bangla Convention Centre-এ দেশ ও বিদেশের তাবড় শিল্পপতিদের উপস্থিতিতে সপ্তম বিশ্ববাংলা বাণিজ্য সম্মেলন বা 7th Bengal Global Business Summit 2023’র উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)। উদ্বোধন মঞ্চেই দেখা মিলবে মুকেশ আম্বানি(Mukesh Ambani), নিরঞ্জন হিরানন্দনি, রিশাদ প্রেমজি, আর দীনেশ,  সজ্জন জিন্দাল, সঞ্জীব পুরী, সঞ্জীব গোয়েঙ্কা, হর্ষবর্ধন নেওটিয়াদের। নবান্ন সূত্রে ইঙ্গিত মিলেছে, এবারের সম্মেলন থেকে অন্তত ৪ লক্ষ কোটি টাকার বিনিয়োগ প্রস্তাব(Investment Proposal) আসতে চলেছে। বিগত বাণিজ্য সম্মেলনগুলিতে কখনও এত টাকার বিনিয়োগ প্রস্তাব আসেনি। একই সঙ্গে এবছরের সম্মেলন এক রেকর্ড গড়তে চলেছে MOU সাক্ষরের সংখ্যার ক্ষেত্রে। কার্যত এদিন বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থানকে ‘পাখির চোখ’ করেই আগামী দিনের রাস্তা তৈরিতে নজর দিচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

এদিন বিকেল ৩টের মূল কর্মসূচি উদ্বোধনের আগে Biswa Bangla Convention Centre’র Annex Building-টি উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী। সন্ধ্যায় সেখানে বসবে নৈশভোজের আসর। Biswa Bangla Convention Centre-এ মূলত আন্তর্জাতিক বিষয় এবং পর্যটন সংক্রান্ত আলোচনাগুলি হবে। মেলা প্রাঙ্গণে চলবে কৃষি, নগরোন্নয়ন, তথ্যপ্রযুক্তি, স্কুলশিক্ষা, উচ্চশিক্ষা, বিদ্যুৎ ইত্যাদির পরিকাঠামো উন্নয়ন সংক্রান্ত আলোচনা। ২২ নভেম্বর সবার চোখ থাকবে ধন্যধান্য প্রেক্ষাগৃহে। কারণ, সেখানে হবে সম্মেলনের সমাপ্তি অনুষ্ঠান। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই সেখানে এই বছরের মোট বিনিয়োগ প্রস্তাবের অঙ্ক ঘোষণা করবেন। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, গতবারের সম্মেলনে মোট ১৩৭টি MOU সাক্ষরিত হয়েছিল। সংখ্যাটা এবার অনেকটাই বাড়তে চলেছে। তৃতীয়বার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পরে পরেই মমতা স্পষ্ট করেছিলেন, এই মেয়াদে তাঁর লক্ষ্য শিল্পায়ন। সেই লক্ষ্যেই এদিন সম্মেলনের উদ্বোধন করতে চলেছেন তিনি।

গত ১২ বছরে মমতার হাত ধরেই তাঁর রাজ্যে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে বিনিয়োগ বেড়েছে নজরকাড়ার মতো। পাশাপাশি পর্যটন, চার্মশিল্প-সহ বিনিয়োগের নতুন দিকও উন্মোচিত হয়েছে। রিয়েল এস্টেট বা আবাসন শিল্পেও উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগ হয়েছে বাংলায়। গত ১২ বছরে দেশে যখন বেকারত্বের হার বেড়েছে, রাজ্যে তখন ৪০ শতাংশ বেকারত্ব কমেছে। তার কারণ সরকারের ‘বহুমুখী দৃষ্টিভঙ্গি’। নবান্ন সূত্রের খবর, শিল্পপতিরা যাতে এ রাজ্যে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী হন সে জন্য বাণিজ্য সম্মেলনে নতুন Incentive Scheme ঘোষণা করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তার ফলে পশ্চিমবঙ্গে শিল্পস্থাপনের জন্য বাড়তি সুযোগ-সুবিধা পাবেন বিনিয়োগকারীরা। নতুন বিনিয়োগ টানার ক্ষেত্রে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প, কৃষি এবং খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, পর্যটন, টেক্সটাইলস-ইঞ্জিনিয়ারিং, রিয়েল এস্টেট, তথ্য-প্রযুক্তি এবং উচ্চশিক্ষাকে গুরুত্ব দিচ্ছে রাজ্য সরকার।

এবারের বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনে স্বাস্থ্য পরিষেবা ক্ষেত্রে মোট ২৬টি MOU সই হবে। তা থেকে সবমিলিয়ে প্রায় ৭,৫০০ কোটি টাকার লগ্নি আসতে পারে। শিক্ষা ক্ষেত্রে MOU সই হবে ৫৯টি এবং তা থেকে প্রায় ৪ হাজার ৬০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ প্রস্তাব আসতে চলেছে। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা ক্ষেত্রে রাজ্যে যথাক্রমে ১,৬০০ কোটি এবং ৩,০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ হতে পারে। MSME ক্ষেত্রে ১৫টির মতো MOU সই হওয়ার কথা রয়েছে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়, এমএসএমই টুলরুম, ফুজ়িসফ্টের মতো বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার মধ্যেও টেকনিক্যাল অ্যারেঞ্জমেন্ট সংক্রান্ত একাধিক চুক্তি স্বাক্ষর হবে। ২০১৯ সালে শিল্প সম্মেলনে এসে বাংলায় ১০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের কথা ঘোষণা করেছিলেন মুকেশ আম্বানি।



Published by:

Koushik Dey Sarkar

Share Link:

More Releted News:

আচমকাই ইস্তফা ইনফোসিসের CFO নীলাঞ্জন রায়ের  

KIFF 2023: কলকাতায় এসে বাঙালিদের ভালবাসা নিয়ে মুম্বইয়ে ফিরতে চান মনোজ

দার্জিলিং – কালিম্পং জেলায় তুষারপাত ও বিক্ষিপ্ত শিলাবৃষ্টির সম্ভাবনা

প্রতারণার মামলায় শেষমেশ আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন সলমনের নায়িকা জারিন

২০২৩ সালের Google সার্চের শীর্ষে চন্দ্রযান ৩, কর্ণাটক নির্বাচনের ফলাফল

কলকাতার রাস্তায় যাত্রা শুরু Uber Shuttle Bus’র

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর