এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine

তৃণমূল ৭২%, বিজেপি ২২%! একধাক্কায় ১৫ শতাংশ ভোট বাড়াল শাসকদল

নিজস্ব প্রতিনিধি: যতদিন যাচ্ছে ক্রমশ বিজেপির দিক থেকে মুখ ফেরাচ্ছে মানুষ। গত ৩০ তারিখের নির্বাচনের দিকে নজর দিলেই চোখে পড়ছে সেই দৃশ্য। ভবানীপুর কেন্দ্রে উপনির্বাচনে কার্যত বিজেপিকে গোহারা হারিয়ে একধাক্কায় অনেকটাই ভোট শতাংশ বাড়িয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। রবিবার সকালে ব্যালট বাক্স খুলতেই ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল ও সিপিএম প্রার্থী শ্রীজীব বিশ্বাসকে অনেকটাই পিছনে ফেলে হু হু করে এগিয়ে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৫৮ হাজার ৮৩৫ ভোটের ব্যবধানে নতুন রেকর্ড গড়ে ভবানীপুরে জয়ের হ্যাটট্রিক গড়লেন মমতা। নিজের রেকর্ড তো বটেই একুশের বিধানসভা নির্বাচনে ভবানীপুরে ভোটে দাঁড়ানো শোভনদেব চট্ট্যোপাধ্যায়ের থেকে কয়েকগুণ বেশি ভোট পেয়েছেন তিনি।

যার ফলে একধাক্কায় ১৫ শতাংশ ভোট মাত্র পাঁচমাস বাদেই হওয়া নির্বাচনে পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, ভবানীপুরে মোট ভোট পড়েছে ১,১৭,৮৭৫টি। পোস্টাল ব্যালট ৭০২টি। তার মধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পেয়েছেন ৮৪,৭০৯ ভোট, পোস্টাল ব্যালট পেয়েছেন ৫৫৪টি। অর্থাৎ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোট ভোট পেয়েছেন ৮৫,২৬৩ টি। শতাংশের নিরিখে ৭১.৯১। অন্য দিকে বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল পেয়েছেন ২৬,৩২০ ভোট এবং পোস্টাল ব্যালটে ১০৮ ভোট, মোট ২৬,৪২৮টি ভোট। অর্থাৎ ২২.২৯ শতাংশ। অর্থাৎ কোনওরকমে মানরক্ষা হয়েছে প্রিয়াঙ্কার। একুশের নির্বাচনে এই আসনেই বিজেপির অনামি অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ প্রার্থী ছিলেন। যাকে তৃণমূলের শোভনদেব চট্ট্যোপাধ্যায় গোহারা হারিয়েছিলেন। পেয়েছিলেন ৫৭.৭১ শতাংশ ভোট। এপ্রিল মাসের বিধানসভা ভোটে ভবানীপুর কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব পেয়েছিলেন ৭৩,৫০৫ ভোট। আর রুদ্রনীল পেয়েছিলেন ৪৪,৭৮৬টি ভোট অর্থাৎ ৩৫.১৬ শতাংশ।

গত ৩০ সেপ্টেম্বরের নির্বাচনের ফলে শোভনদেব চট্ট্যোপাধ্যায়কে হারিয়ে এগিয়ে গিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভবানীপুর উপনির্বাচনে বাম প্রার্থী শ্রীজীব বিশ্বাস ভোটে পেয়েছেন মাত্র ৪,২০১ টি অর্থাৎ ৩.৫৬ শতাংশ ভোট।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

দুর্যোগ মোকাবেলায় কলকাতা পুরসভায় রাত জাগছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম

‘আমার প্রার্থী সায়নী, আগের বার আপনারা অতটা সার্ভিস পাননি’ মিমি প্রসঙ্গে মমতা

রিমলের জেরে বাতিল মমতা -অভিষেকের রোড শো, তবে হবে সভা

ঘূর্ণিঝড় রিমল নিয়ে সতর্ক এবার কলকাতা পৌরসভা, খোলা হল কন্ট্রোল রুম

ঘূর্ণিঝড় রিমলের জেরে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিছোল পরীক্ষা

রাজ্যের D.El.Ed কলেজগুলিতে বাড়ছে না ভর্তির সময়সীমা, ৩১ মে শেষ দিন

Advertisement
এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর