এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




প্রবল ভারী বৃষ্টির মুখে উত্তরবঙ্গ, জারি Red Alert

Courtesy - Google




নিজস্ব প্রতিনিধি: উত্তরবঙ্গে(North Bengal) বর্ষা ঢোকার পর থেকেই টানা বৃষ্টি চলছে উত্তরের জেলাগুলিতে। সেই বৃষ্টিতে ইতিমধ্যেই ফুলেফেঁপে উঠেছে বহু পাহাড়ি নদী। যা থেকে বন্যার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে, নদী সংলগ্ন এলাকাগুলিতে। এই পরিস্থিতিতে আলিপুর আবহাওয়া দফতর বন্যার আশঙ্কার মধ্যেই প্রবল ভারী বৃষ্টির(Heavy to Heavy Rainfall) লাল সতর্কতা বা Red Alert জারি করে দিল উত্তরবঙ্গে। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রবল ভারী বৃষ্টি হতে পারে এমন আশঙ্কা থেকে উত্তরবঙ্গে এই লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বৃষ্টির সব থেকে বড় প্রকোপ দেখা যাবে দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারে। কিন্তু সেই বৃষ্টির জন্য বন্যার মুখে পড়তে পারে কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, শিলিগুড়ি মহকুমা, দুই দিনাজপুর এবং মালদা জেলা। আর তাই উত্তরবঙ্গ জুড়েই এই Red Alert জারি করা হয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের সতর্কবার্তায় বিশেষ ভাবে বলা হয়েছে তিস্তা, তোর্সা, জলঢাকা, সঙ্কোশের মতো নদীর জলস্তর হু হু করে বেড়ে যাওয়ার কথা। পহাড়ি এই নদীগুলির জলস্তর আগামী কয়েকদিনে বাড়তে পারে। উত্তরবঙ্গে টানা বৃষ্টিতে ইতিমধ্যেই ফুলেফেঁপে উঠেছে বহু পাহাড়ি নদী যা থেকে বন্যার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে নদী সংলগ্ন এলাকাগুলিতে। এই পরিস্থিতিতে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের সতর্ক বার্তায় আশঙ্কা আরও বেড়েছে। কারণ, উত্তরবঙ্গে পরিস্থিতির উন্নতির আশা এখনই নেই বরং আরও সমস্যাসঙ্কুল হয়ে উঠতে পারে আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, কালিম্পঙের পরিস্থিতি। আলিপুরদুয়ারে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রবল ভারী বৃষ্টি হতে পারে। শুক্রবার প্রবল ভারী বৃষ্টির লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে আলিপুরদুয়ারে। এ ছাড়া কালিম্পং এবং জলপাইগুড়িতেও জারি করা হয়েছে লাল সতর্কতা। এর পাশাপাশি শুক্রবার কোচবিহার এবং দার্জিলিঙে ভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। সতর্ক করা হয়েছে এই এলাকায় বসবাসকারী এবং পর্যটকদের। তাঁদের ধসপ্রবণ এলাকায় যাতায়াত এড়িয়ে যেতে বলা হয়েছে। এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে জল জমেছে, এমন এলাকাও।

দক্ষিণবঙ্গের গরমে অতিষ্ঠ বহু বাঙালিই এই সময়ে বেড়াতে গিয়েছেন উত্তরবঙ্গে। বিশেষ করে দার্জিলিং-কালিম্পঙের বিভিন্ন এলাকায় পর্যটকেদের ভিড় রয়েছে। বৃষ্টির জন্য সেই দার্জিলিং এবং কালিম্পঙের পাহাড়ি রাস্তায় ধস নামতে পারে বলে সতর্ক করেছে হাওয়া অফিস। বিহার থেকে হিমালয়ের পাদদেশে থাকা বাংলার জেলাগুলি হয়ে অসম এবং নাগাল্যান্ড পর্যন্ত একটি নিম্নচাপ এলাকা তৈরি হয়েছে। এর পাশাপাশি বিহারের কেন্দ্রে তৈরি হয়েছে একটি ঘূর্ণাবর্তও। যা ওই নিম্নচাপের সঙ্গে মিলে উত্তরবঙ্গের ওপরে এমন একটি পরিস্থিতি তৈরি করেছে, যার ফলে ভারী থেকে অতি ভারী এবং প্রবল ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে ডুয়ার্স ও পাহাড়ে। শুক্রবারের পরে শনি, রবি এবং সোমবারেও আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং এবং কালিম্পঙে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করা হয়েছে।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

৫৫ হাজার অসমাপ্ত বাড়ির কাজ শেষের জন্য টাকা ছাড়ছে রাজ্য

পুরুলিয়ায় পরপর পথ দুর্ঘটনায় নিহত ৩, প্রাণ গেল ৮ বছরের নাবালিকার

তারকেশ্বরের শ্রাবণী মেলা উপলক্ষে পূর্ব রেলওয়ের ইএমইউ স্পেশাল ট্রেন চালানোর ঘোষণা

বাগনানে তৃণমূলকে ভোট না দেওয়া মানুষকেও রথের শুভেচ্ছা জানালেন বিধায়ক অরুনাভ সেন

বাদুড়িয়াতে মধুচক্রের আসরের বিরুদ্ধে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ, অবরোধ তুলতে গিয়ে আক্রান্ত পুলিশ

ফের বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরির সম্ভাবনা, ২১শে জুলাই কলকাতায় বৃষ্টির পূর্বাভাস

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর