Breaking কলকাতা পুরভোটের দিনক্ষণ ঘোষিত হতে চলেছে আজই

Published by:
https://www.eimuhurte.com/wp-content/uploads/2021/09/em-logo-globe.png

Koushik Dey Sarkar

25th November 2021 10:18 am | Last Update 25th November 2021 10:46 am

নিজস্ব প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় সাংবাদিক বৈঠক ডাকল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। আর তার জেরেই মনে করা হচ্ছে এদিনই কলকাতা পুরনিগমের নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করে দিতে পারে কমিশন। রাজ্য সরকার ও নির্বাচন কমিশন যৌথ ভাবেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আগামী ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা ও হাওড়া পুরনিগমের পুরনির্বাচন অনুষ্ঠিত করা হবে। কিন্তু হাওড়া পুরনিগম থেকে বালিকে বিচ্ছিন্ন করা নিয়ে হাওড়া পুরনিগমের সংশোধিত বিলে রাজ্যপাল এখন সই করেননি বলে এই পুরনিগমের নির্বাচনের সম্ভাবনা এখন কার্যত বিশবাঁও জলে চলে গিয়েছে। তবে কলকাতায় ১৯ তারিখ ভোট করাতে কোনও বাধা না থাকায় এদিন সম্ভবত কলকাতার পুরনির্বাচনের দিনক্ষন ঘোষণা করে দিতে পারে রাজ্য নির্বাচন কমিশন।

রাজ্য সরকার আগেই জানিয়েছিল তাঁরা বেশ কয়েক দফায় রাজ্যের শতাধিক পুরসভায় নির্বাচন করাতে চায়। সেই মতো রাজ্য সরকার ও রাজ্য নির্বাচন কমিশন ঠিক করেছিল ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা ও হাওড়া পুরনিগমের নির্বাচন করানো হবে। তারপর জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে দফায় দফায় বাকি পুরসভাগুলিতে নির্বাচন করানো হবে। কিন্তু রাজ্য সরকারের সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা ঠুকেছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। তাঁদের দাবি ডিসেম্বরে নয়, আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে রাজ্যে পুরনির্বাচন করাতে হবে ১দিনে এবং সেটাও কেন্দ্রীয় বাহিনীর ঘেরাটোপে। সেই মামলা এখনও কলকাতা হাইকোর্টে বিচারাধীন। যেহেতু মামলাকারী পুরনির্বাচন নিয়ে কোনওরকম স্থগিতাদেশ চায়নি তাই আদালতও কলকাতা পুরনিগমের নির্বাচন নিয়ে কোনও স্থগিতাদেশ দেয়নি। ফলে ১৯ ডিসেম্বর কলকাতা পুরনিগমের নির্বাচন নিয়ে কোনও আইনি জটিলতা তৈরি হয়নি। কিন্তু রাজ্যপাল হাওড়া পুরসভার সংশোধনী বিলে সই করতে না চাওয়ায় সেখানে আইনি জটিলতে তৈরি হয়েছে। তাই হাওড়া পুরনির্বাচন কবে হবে তা কার্যত বিশবাঁও জলে চলে গেল আর সেটাও রাজ্যপালের জন্য। তবে কলকাতায় ১৯ তারিখ ভোট করাতে হলে এদিনই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের শেষ সময়সীমা ছিল। তাই রাজ্য নির্বাচন কমিশনও এদিন কলকাতা পুরনির্বাচনের নির্ঘন্ট ঘোষণা করে দিতে চলেছে।

সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকাল ১০টা নাগাদ রাজ্য সরকার চিঠি রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে কলকাতা পুরনিগমের নির্বাচন নিয়ে সরকারি ভাবে চিঠি দিয়েছে। সেই চিঠি আসার পর পুরভোটের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে চলেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। কার্যত এদিন থেকেই শুরু হয়ে যাবে কলকাতা পুরনিগমের নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক দলগুলির মনোনয়ন দাখিলের প্রক্রিয়া। তবে শাসক দল ভিন্ন কোনও রাজনৈতিক দলই পুরনির্বাচনের জন্য প্রস্তুত নয়। কার্যত তাঁদের এখন ছন্ন ছাড়া দশা। বাম হোক কী বিজেপি কিংবা কংগ্রেস কলকাতা পুরনিগমের ১৪৪টি ওয়ার্ডে্র সবকটিতেই তাঁরা প্রার্থী দিতে পারবে কিনা সন্দেহ। এই নির্বাচনে শাসক দল কার্যত অনেকটাই এগিয়ে থেকে লড়াই শুরু করবে। কেননা একুশের বিধানসভা নির্বাচনে কলকাতা পুরনিগমের আওতাভুক্ত সব বিধানসভা কেন্দ্রে তাঁরা যেমন জয়ী হয়েছে তেমনি সেই নির্বাচনের পরে হওয়া ৭টি বিধানসভা কেন্দ্রেও তাঁরাই জয়ী হয়েছে। তুলনায় বাম ও বিজেপির মধ্যে এখন শুরু হয়েছে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা ও তা ধরে রাখার লড়াই। কলকাতা পুরনির্বাচন কার্যত সেই লড়াইয়ের অন্যতম নির্ধারক হতে চলেছে। যদি বামেরা এই পুরনির্বাচনে বিজেপির থেকে ভাল ফল করে তাহলে সন্দেহ নেই বাংলার বাকি সব পুরসভাতেই কঠিন লড়াইয়ের মুখে পড়ে যাবে বিজেপি।

তবে লক্ষ্যণীয় বিষয় এবারে কমিশনের সাংবাদিক বৈঠকের আগেই পুরনির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়ে গিয়েছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার জেলাশাসকের কাছে পাঠানো চিঠিতে সেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। সেই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে আগামী ১৯ ডিসেম্বরই পুরনির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে কলকাতায়। এদিন থেকেই শুরু হয়ে যাচ্ছে প্রার্থীদের মনোনয়ন দাখিলের কাজ। ১ ডিসেম্বরর মনোনয়ন দাখিলের শেষদিন। ২ ডিসেম্বর হবে স্ক্রটিনি। ৪ ডিসেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। ২২ ডিসেম্বর হবে পুরভোটের গণনা ও ফলপ্রকাশ। তবে ১ ডিসেম্বর মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন ধার্য হওয়ায় বিরোধীরা কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে গেল। রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে এত কম দিন মনোনয়ন দাখিলের জন্য দেওয়ায় তাঁরা এবার পুরনির্বাচনের স্থগিতাদেশ চেয়ে আদালতে পৃথক মামলা দায়ের করতে চলেছে। তবে ঘটনা এটাই যে নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি একবার জারি হয়ে গেলে আর তা স্থগিত বা প্রত্যাহার করা যায় না চট করে। যার অর্থ ছত্রভঙ্গ বিরোধী শিবিরের সামনে এখন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রার্থী দাঁড় করানো তো দূর, প্রার্থী হওয়ার জন্য কাউকে খুঁজে পাওয়াও ভার হতে চলেছে।  

More News:

Leave a Comment

Don’t worry ! Your email & Phone No. will not be published. Required fields are marked (*).

নজরকাড়া খবর

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

Subscribe to our Newsletter

86
মিশন দিল্লি, পিকের চাণক্যনীতি কতটা কাজ দিল মমতার?