এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




পার্থ’র আইনজীবীর আদালতে দাবি অপার সঙ্গে কাকা-ভাইঝির সম্পর্ক

Courtesy - Google




নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্যের সরকারি ও সরকার পোষিত স্কুলে শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং Group-C, Group-D পদে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ২০২২ সালের ২৩ জুলাই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা Enforcement Directorate বা ED গ্রেফতার করেছিল রাজ্যের তৎকালীন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে(Partha Chattopadhay)। পরে গ্রেফতার হন তাঁর ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ও(Arpita Mukhopadhay)। পার্থ’র বাড়ি থেকে বা তাঁর আত্মীয়পরিজনদের বাড়ি থেকে এখনও সেভাবে কিছুই পাওয়া যায়নি। মেলেনি কোনও বেআইনি সম্পত্তির হদিশও। কিন্তু অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছিল ৫০ কোটি টাকা। মিলেছে একাধিক বেআইনি সম্পত্তির হদিশও। দুইজনই সেই সময় থেকেই রয়েছেন জেলবন্দী। দুইজনের গ্রেপতারির পরে ED’র তরফে আদালতে দাবি করা হয়েছিল, অর্পিতা পার্থ’র ঘনিষ্ঠ বান্ধবী। অথচ গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষের এজলাসে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী দাবি করেছেন, পার্থ নাকি অপিতার ‘কাকু’। দুইজনের মধ্যে সম্পর্ক নাকি নিছক ব্যবসার!

ঘটনা হচ্ছে, যেদিন অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধার হয়েছিল সেই সময় তাঁর সেই ফ্ল্যাট থেকেই উদ্ধার হয়েছিল গুচ্ছের Sex Toy। শুধু তাই নয়, গ্রেফতারির পরে অর্পিতা ED’র কাছে স্বীকার করেছিল যে, পার্থ’র স্ত্রীর মৃত্যুর পর থেকেই তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বেড়েছিল পার্থর। তাঁর জন্য টাকা পয়সা খরচ করা কিংবা দামী অলংকার কিনে দেওয়ার কথাও স্বীকার করেছে অর্পিতা থুড়ি পার্থ’র অপা। অর্পিতা কার্যত ED’র কাছে স্বীকার করেই নিয়েছেন, স্ত্রীর শূন্যতা পূরণে তাকে কাছে টেনে নিয়েছিলেন পার্থ। ২০১২ সালে পার্থ’র সঙ্গে আলাপ অপার। ২০১৭ সালে পার্থ’র স্ত্রী বাবলি চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর পর থেকেই নিঃসঙ্গ হয়ে পড়েন পার্থ। সেই থেকেই অর্পিতার সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। মাঝে মধ্যেই পার্থ তাঁর ফ্ল্যাটে যেতেন। তাঁকে দামী গয়নাও উপহার দিয়েছেন। ঘটনা হচ্ছে, অর্পিতার যে বাড়ি থেকে সেক্স টয় উদ্ধার হয়েছে সেখানে কেউ কোনওদিনও পার্থকে আসতে দেখেননি। কিন্তু দীর্ঘকাল ধরে যারা পার্থকে চেনেন, জানেন, তাঁরা এটাও বিলক্ষণ জানেন চট্টোপাধ্যায়বাবু ঠিক কতটা ‘Lady Killer’ হিসাবে কুখ্যাত! হতেই পারে অর্পিতা তাতে সর্বশেষ সংযোজন। পার্থ যুবক বয়স থেকেই ‘Lady Killer’ হিসাবে সুখ্যাতিও অর্জন করেছেন। এহেন মানুষ ক্ষমতার অলিন্দে এসে কাউকে কাউকে কাছে টেনে নেবেন না সেটা কী হতে পারে।

তাই  অনেকজনকে ঘিরেই পার্থ’র নাম জড়িয়েছে। তাঁদের কেউ অধ্যাপিকা, কেউ শিক্ষিকা, কেউ সরকারি আধিকারিক, কেউ বা জনপ্রতিনিধি। সবাই যে বিছানায় ঝড় তুলেছেন এমন কথা বলা হচ্ছে না, তবে Sex Toy হয়তো লাগেনি। নেটিজেনদের দাবি, পার্থ যে গ্রেফতারির আগে বিশেষ গোপন কম্মে ব্যর্থ সেটা এতদিন শুধু ব্রহ্মাই জানতেন। অর্পিতার বাড়ির উদ্ধার হওয়া Sex Toy বলে দিচ্ছে সত্যিই Lady Killer’র এবার বয়স হয়েছে। ঘোড়া আর দৌড়াতে পারছে না। তাই Sex Toy। এখন সেই পার্থ’র আইনজীবী আদালতে দাবি করছেন, অর্পিতা পার্থর বান্ধবী ছিলেন না। তাঁদের মধ্যে কাকা-ভাইঝির মতো সম্পর্ক ছিল! নিজের যুক্তির সপক্ষে পার্থর আইনজীবীর আদালতে আরও দাবি, অর্পিতার বাড়ি থেকে তদন্তকারীরা বিমা সংক্রান্ত যে নথি উদ্ধার করেছে, সেখানেও ‘Nominee’ হিসাবে পার্থর পরিচয় রয়েছে ‘কাকু’ হিসাবে! একই সঙ্গে তাঁর দাবি, অর্পিতার সঙ্গে মন্ত্রীর ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিল। এছাড়া তাঁদের মধ্যে অন্য কোনও সম্পর্ক ছিল না। বোঝো ঠ্যালা! Sex Toy নিয়ে খাট কাঁপিয়ে এখন আওড়াচ্ছে কাকা-ভাইঝির সম্পর্ক(Uncle-Niece Relationship)।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

চাকরি বাতিলের মামলায় স্থগিতাদেশ বহাল রাখল সুপ্রিম কোর্ট

৫৫ হাজার অসমাপ্ত বাড়ির কাজ শেষের জন্য টাকা ছাড়ছে রাজ্য

পুরুলিয়ায় পরপর পথ দুর্ঘটনায় নিহত ৩, প্রাণ গেল ৮ বছরের নাবালিকার

তারকেশ্বরের শ্রাবণী মেলা উপলক্ষে পূর্ব রেলওয়ের ইএমইউ স্পেশাল ট্রেন চালানোর ঘোষণা

বাগনানে তৃণমূলকে ভোট না দেওয়া মানুষকেও রথের শুভেচ্ছা জানালেন বিধায়ক অরুনাভ সেন

বাদুড়িয়াতে মধুচক্রের আসরের বিরুদ্ধে গ্রামবাসীদের বিক্ষোভ, অবরোধ তুলতে গিয়ে আক্রান্ত পুলিশ

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর