এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




রাজ্য বিধানসভার PAC’র Chairman হচ্ছেন সুমন কাঞ্জিলাল

Courtesy - Google and Facebook




নিজস্ব প্রতিনিধি: বঙ্গ বিজেপিকে(Bengal BJP) আবারও ধাক্কা খেতে হতে চলেছে। রাজ্য বিধানসভার(West Bengal State Legislative Assembly) Public Accounts Committee বা PAC’র Chairman পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন উত্তরবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী(Krishna Kalyani)। তিনি একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি টিকিটে জয়ী হলেও পরে তৃণমূলে চলে আসেন এবং রাজ্যের শাসক দল তাঁকে রাজ্য বিধানসভার PAC’র Chairman পদ প্রদানও করে। কিন্তু তিনি এখন তৃণমূলের টিকিটে রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হয়েছেন। আর সেই কারণেই PAC’র Chairman পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। এবার সেই পদে উত্তরবঙ্গেরই আরও এক বিজেপি বিধায়ককে বসাতে চলেছে তৃণমূল(TMC)। সেই ব্যক্তি হলেন আলিপুরদুয়ারের বিজেপি বিধায়ক সুমন কাঞ্জিলাল(Suman Kanjilal)। তিনি একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির টিকিটে নির্বাচিত হলেও ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে জার্সি বদলে তৃণমূলে চলে আসেন। এবার তাঁকেই রাজ্য বিধানসভার Public Accounts Committee বা PAC’র Chairman করতে চলেছে তৃণমূল।

এ দেশের সংসদীয় গণতন্ত্রের রীতি অনুযায়ী রাজ্য বিধানসভা বা লোকসভার Public Accounts Committee’র Chairman পদ বিরোধীরা পায়। কিন্তু দেশের সংবিধানে একাথা কোথাও বলা নেই যে সব সময় সেই পদ বিরোধীদেরই কাউকে দিতে হবে। বাংলার বুকে এই পদ ঘিরে বিরোধিতার সুত্রপাত ঘটে একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পরে। একুশের ভোটে মুকুল রায় বিজেপির প্রার্থী হিসাবে জয়ী হলেও পরে জার্সি বদলে তৃণমূলে ফিরে আসেন। রাজ্যের শাসক দল তাঁকেই PAC’র Chairman বানিয়ে দিয়েছিল। রাজ্যের দাবি ছিল, মুকুল বিজেপি বিধায়কই রয়েছেন। তিনি দলবদল করেননি। সেই নিয়ে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বিস্তর মামলা-মোকদ্দমা করলেও খুব একটা লাভ করে উঠতে পারেননি। পরে মুকুল অসুস্থ হয়ে পড়লে সেই পদে বসানো হয় কৃষ্ণ কল্যাণীকে। তিনিও দলবদলে ততদিনে চলে এসেছেন তৃণমূলে। যদিও খাতায় কলমে তিনি আজও বিজেপি বিধায়কই রয়েছেন।

এবার কৃষ্ণ কল্যানী রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের টিকিটে লড়াই করছেন। নির্বাচনে জয়ী হলে তাঁকে বিধায়ক পদ ছাড়তেই হবে। তবে তিনি নির্বাচনে অবতীর্ণ হওয়ার আগেই PAC’র Chairman পদ থেকে ইস্তফা দেন। এবার সেই পদে আনা হচ্ছে সুমন কাঞ্জিলালকে। সুমনও কৃষ্ণ কল্যাণীর মতো তৃণমূলে চলে এলেও খাতায় কলমে এখনও বিজেপি বিধায়কই রয়েছেন। তাই রীতি মানার সঙ্গে সঙ্গে এই পদ তৃণমূল নিজেদের অনুকূলেই রেখে দিচ্ছে। জানা গিয়েছে, যেহেতু ১৯ এপ্রিল উত্তরবঙ্গের ৩টি লোকসভা কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ করা হবে এবং তার মধ্যে আলিপুরদুয়ার লোকসভা কেন্দ্রটিও আছে, তাই সুমন জানিয়েছেন তিনি ১৯ এপ্রিলের পরে রাজ্য বিধানসভার PAC’র Chairman পদের দায়িত্ব নেবেন।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

মালদাতে কাটমানি দিতে না পারায় মেলেনি রূপশ্রী প্রকল্পের টাকা, তদন্ত শুরু

ফরাক্কায় তোফাপুরে সালিশি সভায় যুবক খুন কাণ্ডে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ঝাড়খন্ড থেকে গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

জলা জমি বোঝানোর অপরাধে লিলুয়াতে ১২জন শ্রমিককে গ্রেফতার করল পুলিশ, আটক রাবিশ ভর্তি ট্রাক

নারী পাচার কাণ্ডে ২০ বছরের সাজা ঘোষণা করলো ঝাড়গ্রাম জেলা আদালত

মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভ প্রকাশ করার পর সেক্টর ফাইভে বেআইনি হকার হটাতে তৎপর পুলিশ

মুখ্যমন্ত্রীর ধমক খেয়ে আসানসোলে জবরদখল রুখতে তৎপর প্রশাসন

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর