এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




হাইকোর্টে ধাক্কা শুভেন্দুর, মানতে হবে পুলিশের শর্ত, চাই রাজ্যপালের অনুমতিও

Courtesy - Google




নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলার রাজনীতির ময়দানে বঙ্গ বিজেপি(Bengal BJP) নেতৃত্ব যত জমি হারাচ্ছে, ততই তাঁদের লড়াই কলকাতা হাইকোর্ট(Calcutta High Court) কেন্দ্রীক হয়ে পড়ছে। বার বার এই ঘটনা প্রমাণিত হয়ে গিয়েছে এবং হয়ে চলেছে। গতকাল অর্থাৎ ১৩ জুন রাজ্যপাল(Governor of West Bengal) সি ভি আনন্দ বোসের(C V Anand Bose) সঙ্গে দেখা করতে রাজভবনে গিয়েছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী(Suvendu Adhikari)। সেই দেখা করার কারণ ছিল, লোকসভা নির্বাচন মিটে যাওয়ার পরে রাজনৈতিক হিংসায় ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে রাজ্যপালের দেখা করিয়ে দেওয়া। কিন্তু শুভেন্দুকে রাজভবনের গেটের আগেই আটকে দেয় পুলিশের ব্যারিকেড। পুলিশের দাবি ছিল, যেহেতু রাজভবন লাগোয়া এলাকায় ১৪৪ ধারা লাগু আছে তাই গুটিকয় ঘরছাড়া বিজেপি কর্মী বা সমর্থকদের নিয়ে পায়ে হেঁটে রাজভবনে যেতে হবে শুভেন্দুকে। তিনি কনভয় নিয়ে রাজভবনে যেতে পারবেন না। শুভেন্দু সেই ঘটনার জেরেই কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলাতেই এদিন আদালত জানিয়ে দিল, পুলিশের শর্ত মেনেই শুভেন্দুকে যেতে হবে রাজভবনে। সেই সঙ্গে চাই রাজ্যপালের অনুমতি।

রাজ্যপালের সঙ্গে ভোট পরবর্তী হিংসায় ‘আক্রান্ত’দের দেখা করতে দিচ্ছে না পুলিশ, এই অভিযোগ তুলেই এদিন কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন শুভেন্দু। মামলা দায়ের করার অনুমতি দেন বিচারপতি অমৃতা সিনহা। সেই মামলার শুনানিতেই এদিন আদালত জানিয়ে দেয়, রাজভবনে যেতে গেলে শুভেন্দুকে অবশ্যই পুলিশের শর্ত মানতে হবে। তাঁর সঙ্গে কে কে রাজভবনে যাচ্ছেন তা লিখিত ভাবে জানাতে হবে পুলিশকে। একই সঙ্গে চাই রাজ্যপালের অনুমতিও। রাজ্যপাল অনুমতি না দিলে রাজভবনে পা রাখতেও পারবেন না রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। এই রায়ের মাঝেই আবার কলকাতার পুলিশ কমিশনার বিনীত গয়ালকে চিঠি দিয়েছেন শুভেন্দু। সেই চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন যে, কেন্দ্রীয় বঞ্চনার অভিযোগ তুলে এবং রাজ্যের বকেয়া মেটানোর দাবিতে গত বছর ডিসেম্বর মাসে রাজ ভবনের সামনে টানা ধরনায় বসেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবার ওই একই জায়গায় ধর্নায় বসতে চান তিনি৷ আগামী ১৯ জুন থেকে ধরনায় বসতে চান বলে নগরপালকে লেখা চিঠিতে জানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা৷ তবে বিরোধী দলনেতাকে সেই অনুমতি দেওয়া হবে কি না, সে বিষয়ে এখনও কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি৷  

সব থেকে বড় কথা, এদিন কলকাতা হাইকোর্ট শুভেন্দু যখন খুশি যা খুশি করার ওপর একতা বড়সড় ধাক্কা দিয়েছে। ভোট পরবর্তী হিংসায় ‘আক্রান্ত’দের নিয়ে আবার রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করতে চাইলে শুভেন্দু যখন খুশি গিয়ে রাজভবনে যে হত্যে দিতে পারবেন না, সেটা বুঝিয়ে দিয়েছে আদালত। জানিয়ে দিয়েছে, রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করতে হলে তাঁকে নতুন করে আবেদন করতে হবে। যদি রাজভবন অনুমতি দেয়, তবেই সেখানে যেতে পারবেন শুভেন্দু। এদিন কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে, রাজভবনে কত জন লোক যাবেন, কতগুলি গাড়ি থাকবে, সেই সংখ্যা জানাতে হবে পুলিশকে। বিচারপতি জানিয়েছেন, পুলিশের বাধা দেওয়া নিয়ে হলফনামা জমা দেবেন শুভেন্দু। পাল্টা হলফনামা দেবে রাজ্য। আগামী ছ’সপ্তাহ পরে এই মামলার শুনানি।




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

Real Estate Company’র জমি দখলের অভিযোগে যুব তৃণমূল নেতার নামে FIR

রাজ্যপালকে ছাড়াই বিধানসভায় ৪ বিধায়কের শপথ প্রস্তুতি

একুশের মঞ্চে হল না শোভনের কামব্যাক, দলে দীর্ঘ হচ্ছে অভিষেকের ছায়া

দেব, সৌমিতৃষা থেকে ‘দিদি নং ১’ রচনা, একুশের সভামঞ্চে টলিউডের ভিড়

‘অসহায় মানুষ বাংলার দরজা খটখটানি করলে আশ্রয় দেব’, বাংলাদেশ নিয়ে আশ্বাস মমতার

‘বিত্তবান চাইনা, বিবেকজ্ঞান চাই, লোভ নয়, সামাজিক বন্ধু হোন’, দলকে বার্তা মমতার

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর