এই মুহূর্তে

WEB Ad Valentine 3

WEB Ad_Valentine




টাটার অন্যতম মালিক, নেই মোবাইল ফোন




নিজস্ব প্রতিনিধি: থাকেন দু কামরার ফ্ল্যাটে, নেই মোবাইল (Mobile) ফোনও। তাঁর পরিচয় তিনি টাটা (TATA) গোষ্ঠীর এমিরেটাস চেয়ারম্যান (Emeritus Chairman) রতন টাটার (Ratan Tata) ভাই, জিমি টাটা (Jimmy Tata)। এই প্রতিবেদন জিমি টাটার জীবন যাপন নিয়ে।

বিপুল সম্পত্তির মালিক হলেও জীবন যাপনে নেই বৈভব। দু কামরার ফ্ল্যাটেই দিন কাটান জিমি টাটা। এমনকি টাটা গোষ্ঠীর অন্যতম মালিক হয়েও ব্যবহার করেন না মোবাইল ফোন। মঙ্গলবার ইনস্টাগ্রামে টাটা সন্সের এমিরেটাস চেয়ারম্যান রতন টাটা তাঁর ছোট ভাই জিমি টাটার সঙ্গে একটি ছবি শেয়ার করেন। সেখানে দুই কিশোর ভাইকে দেখা যাচ্ছে হাস্যোজ্জ্বল মুখে একটি কুকুরছানার সঙ্গে। সঙ্গে রয়েছে একটি সাইকেল। সাদাকালো সেই ছবি পোস্ট করে রতন টাটা ক্যাপশনে লিখেছেন ‘সেগুলি আনন্দের দিন ছিল। আমাদের মধ্যে কিছুই আসেনি।’ একইসঙ্গে তিনি লিখেছেন, ‘আমার ভাই জিমির সঙ্গে ১৯৪৫’।

জিমি টাটার বয়স বর্তমানে ৮২ বছর। তিনি টাটা সন্স এবং অন্যান্য টাটা গ্রুপ কোম্পানির শেয়ারহোল্ডার। বিপুল টাকার মালিক হওয়া সত্ত্বেও তিনি সাধারণ জীবন যাপন বজায় রেখেছেন। কোলাবায় একটি ২ বিএইচকে ফ্ল্যাটে থাকেন রতন টাটার ছোট ভাই। বিস্ময়কর তথ্য হলো তাঁর নিজের কোনও মোবাইল ফোন নেই। টাটা গোষ্ঠীর অন্যতম মালিককে নিয়ে গত বছর জানুয়ারি মাসে একটি টুইট করেছিলেন আরপিজি (RPG) গ্রুপের চেয়ারম্যান হর্ষ গোয়েঙ্কা। টুইটে তিনি লিখেছিলেন, ‘রতন টাটার ছোট ভাই জিমি টাটা সম্পর্কে জানেন? তিনি মুম্বইয়ের কোলাবায় মাত্র দুই বেডরুমের একটি ফ্ল্যাটে থাকেন। ব্যবসার প্রতি কখনই আগ্রহ ছিল না, তিনি খুব ভালো স্কোয়াশ খেলোয়াড় ছিলেন এবং প্রতিবারই আমাকে পরাজিত করতেন। টাটা গ্রুপের হাজারও লাইমলাইট থেকে অনেক দূরে তিনি সরল জীবনযাপন করেন।’




Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

জম্মু-কাশ্মীরে লাগাতার সেনা জওয়ানদের মৃত্যু নিয়ে মোদিকে তোপ খাড়গের

কাশ্মীরের ডোডায় জঙ্গিদের সঙ্গে সংঘর্ষে মেজর-সহ চার সেনা জওয়ান শহিদ

বিহারে ইন্ডিয়ার জোটসঙ্গী প্রাক্তন মন্ত্রীর বাবাকে নৃশংসভাবে খুন, চাপে পড়ে সিট গঠন নীতীশের

উল্টো রথের তিথিতে খুঁটিপুজো অনুষ্ঠিত হল ত্রিধারা সম্মিলনীর দুর্গাপুজোর, হাজির দেবাশীষ কুমার

উদ্ধবের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা হয়েছে, দাবি জোশি মঠের শঙ্করাচার্যের

Zomato-তে ১৩৩ টাকার মোমো অর্ডার দিয়ে তরুণীর পকেটে এল ৬০,০০০, কীভাবে?

Advertisement




এক ঝলকে
Advertisement




জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর