এই মুহূর্তে

জালিয়াত ‘মোদি-ভক্তদের’ চিনে রাখুন

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিল্লি: একটি ছবি, যা দেশের মান সম্মানকে মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছে। ছবিটি প্রকাশিত হয়েছে বিশ্বের জনপ্রিয় সংবাদপত্র নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রথম পাতায়। পত্রিকার তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ছবিটি জাল। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে দেরি হয়নি ওই ছবি-সহ প্রতিবেদন।

সাংবাদিকতায় একটি প্রবাদবাক্য রয়েছে নিউজ বিহাইন্ড নিউজ। আশা করি এর বাংলা তর্জমা করার প্রয়োজন হবে না। প্রশ্ন হল মোদির এই ছবির কারিগর কারা। পাঠকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া যাক এই মোদি ভক্তদের। সৌজন্য মালব্য অ্যান্ড কোম্পানি।

মনোজ কুমার জৈন যোশী

টুইটার অ্যাকাউন্টে নিজের পরিচয় দিয়েছেন সাংবাদিক, শিক্ষক, লেখক এবং সমাজসেবী। কোন সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত তা কিন্তু কেউ জানে না। নিজেকে শিক্ষক হিসেবে  পরিচয় দিয়েছেন। কিন্তু কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত, তার কোনও উল্লেখ নেই।

কবিতা মেয়র

ইনিও অন্যতম মোদি-ভক্ত। টুইটার অ্যাকাউন্টে যোগদান ২০২০ সালে। ফলোয়ার এক হাজারের বেশি। ইনি অবশ্য নিজের ব্যাপারে টুইটারে বিশেষ কিছু উল্লেখ করেননি। তবে ফলোয়ারের সংখ্যা এক হাজারের বেশি। নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টের ক্য়াচলাইন দেশ সে পেয়ার আঔর মোদি সে পেয়ার এক বাত (বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায় দেশকে ভালোবাসা আর মোদিকে ভালোবাসা সমার্থক)

রোহিত চাহাল

ইনি অবশ্য নতুন নন। তাও পাঠকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া যাক। বিজেপি যুব শাখার জাতীয় সাধারণ সম্পাদক। এনারও টুইটার অ্যাকাউন্টের ফলোয়ার প্রায় লাখের কাছাকাছি ( ৭৬ হাজার)।

যে প্রশ্ন দেশবাসীকে ভাবিয়ে তুলেছে এরকম একটা জাল ছবিয়ে ছাপিয়ে ভারতের মান সম্মান জলে ডুবিয়ে দেওয়ার অধিকার তাদের কে দিল?  আর ডুবিয়ে যখন দিয়েছে, তখন নিঃশর্তে ক্ষমা চাইতে হবে।

Published by:

Ei Muhurte

Share Link:

More Releted News:

আচমকাই শিন্ডে-ফড়নবিশদের মধ্যাহ্নভোজে আমন্ত্রণ পওয়ারের, শোরগোল মরাঠা ভূমে

রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা থেকে ৩ আসন দূরে NDA

হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকছেন সুখুই, জানালেন কংগ্রেসের বিশেষ দূত শিবকুমার

আদালতের অনুমতি না নিয়ে রাম রহিমকে প্যারোলে মুক্তি নয়, নির্দেশ পঞ্জাব-হরিয়ানা হাইকোর্টের

‘দুঃখিত, ক্ষমা করে দিও’, বাবাকে শেষ চিঠিতে লিখল আত্মঘাতী পড়ুয়া

কানপুরে গাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার ২ কিশোরীর দেহ, ধর্ষণের অভিযোগ পরিবারের

Advertisement

এক ঝলকে
Advertisement

জেলা ভিত্তিক সংবাদ

দার্জিলিং

কালিম্পং

জলপাইগুড়ি

আলিপুরদুয়ার

কোচবিহার

উত্তর দিনাজপুর

দক্ষিণ দিনাজপুর

মালদা

মুর্শিদাবাদ

নদিয়া

পূর্ব বর্ধমান

বীরভূম

পশ্চিম বর্ধমান

বাঁকুড়া

পুরুলিয়া

ঝাড়গ্রাম

পশ্চিম মেদিনীপুর

হুগলি

উত্তর চব্বিশ পরগনা

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা

হাওড়া

পূর্ব মেদিনীপুর